সোমবার, ১৯ নভেম্বর ,২০১৮

Bangla Version
SHARE

মঙ্গলবার, ২৩ অক্টোবর, ২০১৮, ১১:১৩:১১

মইনুলকে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান ৫৫ সাংবাদিকের

মইনুলকে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান ৫৫ সাংবাদিকের

ঢাকা: একাত্তর টেলিভিশনের টকশো-তে সাংবাদিক মাসুদা ভাট্টি সম্পর্কে অবমাননাকর মন্তব্য করায় ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনকে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছেন দেশের বিভিন্ন গণমাধ্যমের ৫৫ জন সম্পাদক ও সাংবাদিক।

বিবৃতিতে বলা হয়, একাত্তর টেলিভিশনের টকশো-তে একটি প্রশ্নের প্রেক্ষিতে ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন মাসুদা ভাট্টিকে ‘চরিত্রহীন’ বলে গাল দেওয়ার আমরা তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি। আমরা মনে করি, কেবলমাত্র সাংবাদিকসুলভ প্রশ্ন করায় এরকম ক্ষিপ্ত হয়ে কাউকে চরিত্রহীন বলার এখতিয়ার কারোরই নেই। স্বাধীন সাংবাদিকতা ও মুক্ত গণমাধ্যম যখন বিভিন্নভাবে আক্রান্ত তখন রাজনীতিবিদ ও আইনবিদ হিসেবে ব্যারিস্টার মইনুলের কাছ থেকে এরকম আচরণ মোটেই গ্রহণযোগ্য নয়।

বিবৃতিতে ব্যারিস্টার মইনুলের আচরণে ক্ষোভ প্রকাশ করে বলা হয়, আমরা অবিলম্বে মইনুল হোসেনের এই ঘৃণ্য বক্তব্য প্রত্যাহার করে প্রকাশ্যে ক্ষমা প্রার্থনার দাবি করছি। এটা শুধু মাসুদা ভাট্টিকে অপমান করা হয়েছে বলে নয়, বরং ভবিষ্যতে যাতে কেউ আর এভাবে কাউকে ব্যক্তি আক্রমণ না করেন সেটা নিশ্চিত করার জন্যই অবিলম্বে তার কাছ থেকে প্রকাশ্যে একটি মার্জনা প্রার্থনা আসা প্রয়োজন।

বিবৃতিদানকারীরা হলেন জাতীয় প্রেস ক্লাবের সভাপতি মুহাম্মদ শফিকুর রহমান, দ্য ডেইলি অবজারভার’র সম্পাদক ও প্রধানমন্ত্রীর তথ্য উপদেষ্টা ইকবাল সোবহান চৌধুরী, বাসস’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবুল কালাম আজাদ, দৈনিক প্রথম আলো’র সম্পাদক মতিউর রহমান, দ্য ডেইলি স্টার সম্পাদক মাহফুজ আনাম, দৈনিক আমাদের নতুন সময়’র সম্পাদক নাঈমুল ইসলাম খান, ইটিভি’র এডিটর ইন চিফ অ্যান্ড সিইও মঞ্জুরুল আহসান বুলবুল, গাজী টিভি ও সারাবাংলা ডটনেট’র এডিটর ইন চিফ সৈয়দ ইশতিয়াক রেজা, একাত্তর টেলিভিশনের প্রধান সম্পাদক মোজাম্মেল বাবু, দৈনিক ভোরের কাগজ’র সম্পাদক শ্যামল দত্ত, দৈনিক বাংলাদেশ প্রতিদিন’র সম্পাদক নঈম নিজাম, ডিবিসি‘র প্রধান সম্পাদক ও সিইও মঞ্জুরুল ইসলাম মঞ্জু, ইনডিপেনডেন্ট টেলিভিশনের প্রধান নির্বাহী ও এডিটর ইন চিফ শামসুর রহমান, মানবকণ্ঠ’র ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক আবু বকর চৌধুরী, বিডিনিউজ২৪.কম’র প্রধান সম্পাদক তৌফিক ইমরোজ খালেদী, দ্য ঢাকা ট্রিবিউন‘র সম্পাদক জাফর সোবহান, এনার্জি অ্যান্ড পাওয়ার’র সম্পাদক মোল্লাহ আমজাদ হোসেন, এটিএন নিউজ‘র প্রধান নির্বাহী সম্পাদক মুন্নী সাহা, এটিএন বাংলা’র প্রধান নির্বাহী সম্পাদক জ ই মামুন, দৈনিক আমাদের অর্থনীতি’র সম্পাদক নাসিমা খান মন্টি, বাংলা ট্রিবিউন‘র সম্পাদক জুলফিকার রাসেল, দৈনিক আমাদের নতুন সময়’র সংযুক্ত সম্পাদক কবি অসীম সাহা, প্রথম আলো’র সহযোগী সম্পাদক সোহরাব হোসেন, যুগ্ম সম্পাদক আনিসুল হক ও ব্যবস্থাপনা সম্পাদক সাজ্জাদ শরীফ, দৈনিক সমকাল’র উপ-সম্পাদক আবু সাঈদ খান, দৈনিক আমাদের নতুন সময়’র গ্রুপ যুগ্ম সম্পাদক বিভুরঞ্জন সরকার, দৈনিক ইত্তেফাক’র সিনিয়র সাংবাদিক শাহীন রেজা নূর, সারাবাংলা ডটনেট’র নির্বাহী সম্পাদক মাহমুদ মেনন, দ্য ডেইলি স্টার’র সিনিয়র সাংবাদিক ইনাম আহমেদ, দৈনিক প্রথম আলো’র শওকত হোসেন মাসুম, বিএফইউজে‘র সাবেক সাধারণ সম্পাদক ওমর ফারুক, বিএফইউজে’র সাধারণ সম্পাদক শাবান মাহমুদ, ভোরের কাগজ’র এডিটোরিয়াল ইনচার্জ সালেক নাসিরুদ্দীন, যুগান্তর’র সহকারী সম্পাদক মাহবুব কামাল, যুগান্তর’র সিনিয়র সাব এডিটর দীল রওশন সীমু, জাতীয় প্রেস ক্লাবের যুগ্ম সম্পাদক মো. আশরাফ আলী, ডিবিসি’র সম্পাদক প্রণব সাহা, এটিএন নিউজ’র হেড অব নিউজ প্রভাষ আমিন, ডিবিসি সম্পাদক জায়েদুল আহসান পিন্টু ও নবনীতা চৌধুরী, বাংলাভিশন’র সিনিয়র নিউজ এডিটর মাসুদ কামাল, সমকাল’র সহযোগী সম্পাদক অজয় দাশগুপ্ত, সিনিয়র সাংবাদিক ও আরএসএফ’র বাংলাদেশ প্রতিনিধি সালিম সামাদ, ইনডিপেনডেন্ট টিভি’র স্পেশাল অ্যাফেয়ার্স এডিটর জাহিদ হোসেন, দৈনিক জাগরণ’র নির্বাহী সম্পাদক দুলাল আহমেদ চৌধুরী, দৈনিক আমাদের অর্থনীতি’র নির্বাহী সম্পাদক ইকবাল মোহাম্মদ খান ও উপ-সম্পাদক মাহবুবুল আলম, দৈনিক আমাদের নতুন সময়’র বিশেষ প্রতিনিধি আমান উদ দৌলা, এশিয়ান এজ’র শোয়েব চৌধুরী, ডেইলি স্টার’র চিফ নিউজ এডিটর সৈয়দ আশফাকুল হক, চ্যানেল নাইন’র হেড অব নিউজ আমিনুর রশিদ, দেশ টিভি’র নির্বাহী সম্পাদক সুকান্ত গুপ্ত অলক, সিনিয়র সাংবাদিক হারুন হাবীব, পিআইবি’র মহাপরিচালক শাহ আলমগীর, সিনিয়র সাংবাদিক মোজাম্মেল হোসেন মঞ্জু।

এর আগে, গতকাল শনিবার সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের এই উপদেষ্টার সব সংবাদ সাত দিন বর্জন করার জন্য গণমাধ্যমের প্রতি আহ্বান জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছিলেন নারী সাংবাদিকরা।

এই বিভাগের আরও খবর

আজকের প্রশ্ন

সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন ‘খালেদা জিয়ার শারীরিক অসুস্থতা নিয়ে বিএনপির নেতারা মিথ্যাচার ও বিভ্রান্তি করছে। আপনিও কি তাই মনে করেন?