সোমবার, ১০ ডিসেম্বর ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

রবিবার, ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ০৮:৩৮:০২

হাতি তাড়াতে মৌমাছি!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : বাংলায় একটা প্রবাদ আছে মশা মারতে কামান দাঁগানো। এবার যদি এমন হয় যে কামান মারতে মশা দাঁগানো তাইলে কেমন হবে ভাবুন তো। এমনই এক অভিনব উদ্যোগ নিয়েছে ভারতীয় রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ। তারা হাতি তাড়াতে ব্যবহার করছে মৌমাছিকে!

ভারতের বিভিন্ন রাজ্যে প্রায়ই ট্রেনের ধাক্কায় হাতির মৃত্যু হয়। আর এ মৃত্যু রুখতে এবার  ভারতীয় রেলের পরিকল্পনা ‘প্ল্যান বি’। হাতির করিডরগুলিতে এমন ডিভাইস ব্যবহার করবে রেল। এই ডিভাইস থেকে ছড়াবে মৌমাছির আওয়াজ। যা ৬০০ মিটার দূর থেকে শুনতে পাবে হাতির পাল। উত্তর-পূর্ব সীমান্ত রেলের গুয়াহাটির কাছে পরীক্ষামূলক ভাবে লাগনো হয়েছে এই ডিভাইস। যা উপযুক্ত কাজ করছে বলে রেল জানিয়েছে।

মাত্র ২ হাজার টাকা খরচের বিনিময়ে এই মৌমাছির গুঞ্জনের ডিভাইস করা যাচ্ছে। ভারতের কেন্দ্রীয় রেল প্রতিমন্ত্রী রাজেন গোঁহাইন কিছুদিন আগেই জানিয়েছিলেন, ‘২০১৪ থেকে ২০১৭ মধ্যে লাইন পারাপারের সময় ট্রেনের ধাক্কায় মারা গিয়েছে ৩৫টি হাতি। গত এপ্রিল মাসে হাওড়া-মুাম্বই মেলের ধাক্কায় ওড়িশার ঝাড়সুগুদা শাখার তেলিদিহিতে চারটি হাতি মারা যায়।’

ছোট মৌমাছির হুলকে অনেক বেশি ভয় পায় হাতি। এই বদ্ধ ধারণা থেকেই এবার রেলের নবতম পরিকল্পনা। হাতি তাড়াতে এবার মৌমাছির গুঞ্জনকে হাতিয়ার করা। আর এই কায়দা নিতে হাতির করিডরগুলিতে এমন এক ডিভাইস লাগানো হচ্ছে যাতে ভোঁ ভোঁ শব্দ হবে মৌমাছির গুঞ্জনের মতো। যা ৬০০ মিটার দূর থেকে শুনতে পাবে হাতির পাল। শুনেই আর সেদিকে আগাবে না তারা। যা গাড়ি আসার আগেই চালানো হবে কিছুক্ষণ যাবৎ।

এই মোক্ষম দাওয়াই কাজে আসবে বলে বিশেষজ্ঞদের ধারণা। এক একটির দাম মাত্র দু’হাজার টাকা। ফলে উত্তর-পূর্ব ও দক্ষিণ রেলের যে জায়গাতে হাতি লাইন পারাপার করে সেখানে ব্যবহার করা হবে।

আজকের প্রশ্ন

সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন ‘খালেদা জিয়ার শারীরিক অসুস্থতা নিয়ে বিএনপির নেতারা মিথ্যাচার ও বিভ্রান্তি করছে। আপনিও কি তাই মনে করেন?