মঙ্গলবার, ২৫ জুন ,২০১৯

Bangla Version
  
SHARE

শনিবার, ০৫ জানুয়ারী, ২০১৯, ০৪:৫৮:৫২

৬ মিসড কলেই ব্যবসায়ীর ১.৮৬ কোটি টাকা উধাও!

৬ মিসড কলেই ব্যবসায়ীর ১.৮৬ কোটি টাকা উধাও!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: মোবাইলে মিসকল এলো ৬টি। এরপরই সর্বনাশ ঘটল এক গার্মেন্টস ব্যবসায়ীর। তার অ্যাকাউন্ট থেকে ১.৮৬ কোটি টাকা চুরি করল সাইবার সন্ত্রাসীরা।
গত বছরের ২৮ তারিখে এমন ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের মুম্বাইয়ে।
বছরের প্রথম দিনে মুম্বাই পুলিশের সাইবার ক্রাইম শাখায় এমন অভিযোগ দায়ের করেছেন সেই ভুক্তোভোগী ব্যবসায়ী।
তার সেই অভিযোগ থেকে জানা গেছে, সিম কার্ড সোয়াপিংয়ের জেরেই এমন ঘটনার শিকার হলেন ওই ব্যবসায়ী।
ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম এনডিটিভি জানিয়েছে, ঘটনার পরদিন ওই ব্যবসায়ীর এক কর্মচারী একটি ফান্ড ট্রান্সফারের জন্য ব্যাংকে গেলে অ্যাকাউন্ট চেক করে জানতে পারেন, ওই টাকাগুলো প্রায় ১৫টি ভিন্ন ভিন্ন অ্যাকাউন্টে পাঠানো হয়েছে।
অথচ এসব লেনদেনের কোনোটিই ওই ব্যবসায়ী বা তার কর্মচারীদের কেউ করেন নি বলে জানান তারা।

এনডিটিভিকে ওই ব্যবসায়ী জানান, ডিসেম্বরের ২৭ ও ২৮ তারিখে তার মোবাইলে ৬টি মিসড কল আসে।
৬ টি মিসড কলের মধ্যে দুটি ছিল লন্ডনের নম্বর। এটা দেখে তার সন্দেহ হয়। ইতিমধ্যে তার সিম কাজ করা বন্ধ করে দেয়। তিনি সার্ভিস প্রোভাইডারের সঙ্গে যোগাযোগ করেন।
সেখান থেকে তাকে জানানো হয় ২৭ ডিসেম্বর রাত ১১.১৫ নাগাদ নাকি তিনি নিজেই ফোন করে সিম কার্ডটি বন্ধ করে অনুরোধ করেন।
মুম্বাই সাইবার ক্রাইম শাখার কর্মকর্তারা বলেস, ‘সিম সোয়াপ’ পদ্ধতিতে এই প্রতারণাটি করেছে এক অপরাধী চক্র।
তারা জানান, সিম সোয়াপ বা সিম এক্সচেঞ্জ পদ্ধতিতে তথ্যের অধিকার পেয়ে যায় সাইবার ক্রিমিনালরা। এরপর তারা ওটিপি ব্যবহার করে টাকা ট্রান্সফার করে নেয়।
ভুক্তোভোগী ব্যবসায়ীর অ্যাকাউন্ট থেকে ২৮টি লেনদেন করা হয়েছে। কিন্তু সিম কার্ড ব্লক থাকায় তিনি জানতেও পারেননি বলে জানান কর্মকর্তারা।

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি ‘সিম সোয়াপ’ পদ্ধতিতে ভারতে ব্যাংকের তথ্য অহরহ চুরি হচ্ছে বলে ভারতীয় বিভিন্ন গণমাধ্যমের খবর।
এই ফাঁদে পড়ে কয়েক মিনিটের মধ্যেই অনেকের ব্যাংক অ্যাকাউন্ট ফাঁকা করে ফেলছে দুষ্কৃতীকারীরা। মূলত যারা মোবাইল ব্যাংকিং করেন, তাদেরই এই পদ্ধতিতে টার্গেট করা হয়।

আজকের প্রশ্ন

বিএনপি নেতা ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেছেন, পুলিশের ওপর নির্বাচন কমিশনের কোনো নিয়ন্ত্রণ নেই। আপনিও কি তা-ই মনে করেন?