রবিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ,২০১৭

Bangla Version
  
SHARE

বৃহস্পতিবার, ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৭, ০৫:৪১:২৩

‘বিএনপির ত্রাণে বাধা দেয়ার জবাব প্রধানমন্ত্রীকেই দিতে হবে’

‘বিএনপির ত্রাণে বাধা দেয়ার জবাব প্রধানমন্ত্রীকেই দিতে হবে’

ঢাকা: মিয়ানমার থেকে নির্যাতিত হয়ে আসা অসহায় রোহিঙ্গাদের জন্য বিএনপির ২২টি ত্রাণবাহী ট্রাক কেন সরকারের আইনশৃঙ্খলাবাহিনি আটকিয়ে রেখেছে তার জবাব প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকেই দিতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন সাবেক রাষ্ট্রপতি ও বিকল্পধারা বাংলাদেশের সভাপতি প্রফেসর ডা. একিউএম বদরুদ্দোজা চৌধুরী। 

তিনি বলেন, ‘রোহিঙ্গাদের রক্ষার্থে দেরিতে হলেও প্রধানমন্ত্রীর শুভ বুদ্ধির উদয় হয়েছে। যেভাবে তিনি রোহিঙ্গাদের পাশে গিয়ে কেঁদেছেন বিভিন্ন পত্রপত্রিকায় এসেছে সত্যিই প্রশংসার যোগ্য। কিন্তু বিএনপি একটি বিরাট রাজনৈতিক দল তাদের ত্রাণবাহী ট্রাক কেন সরকারের আইনশৃঙ্খলাবাহিনি আটকিয়ে দিল তা আমার বোধগম্য নয়। এর ব্যাখ্যা ও জবাব প্রধানমন্ত্রী নিজেই দেয়া উচিৎ। কারণ তিনি সব সময় নিজেকে নির্বাচিত ও জবাবদিহিমূলক সরকার দাবি করেন।’

বৃহস্পতিবার (১৪ সেপ্টেম্বর) দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে জাতীয় মানবাধিকার আন্দোলন আয়োজিত ‘মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের উপর নির্যাতন-নিপীড়ন ও গণহত্যা: মানবাধিকারের চরম অবনতি এবং সমস্যা সমাধানে বিশ্ব সম্প্রদায় নিরব কেন?’ শীর্ষক এক সেমিনারে তিনি এসব কথা বলেন। 

বি. চৌধুরী বলেন, ‘ত্রাণবাহী ট্রাক কেন সরকারের আইনশৃঙ্খলাবাহিনি আটকিয়ে রেখেছে এ বিষয়ে আপাতত আর কোন কথা বলবো না। আজ তথাকথিত বিরোধীদল রোহিঙ্গাদের জন্য সাহায্য নিয়ে যাবে দেখবো সরকার তাদের সাথে কেমন আচরণ করে তারপর আমি মন্তব্য করবো। রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশের তথাকথিত বিরোধী দল সরকারকে কোন প্রশ্ন করবে না। জনগণের পক্ষ থেকে এ প্রশ্ন আমাদেরকেই করতে হবে।’ 

মিয়ানমার ধীরে ধীরে বন্ধুহীন রাষ্ট্রে পরিণত হচ্ছে দাবি করে সাবেক এই রাষ্ট্রপতি বলেন, ‘মিয়ানমার মুসলমান রোহিঙ্গাদের উপর ভয়াবহ নির্যাতন করে বন্ধুহীন রাষ্ট্রে পরিণত হচ্ছে। অং সান সু চির বিবেক থাকলে বিশ্ব নেতৃবৃন্দের কাছে জবাবদিহি করতো। তার বিরুদ্ধে জাতিসংঘের অধিবেশনে শুধু নিন্দা প্রস্তাব আনলে হবে না। শান্তি রক্ষার জন্য প্রয়োজনে মিয়ানমারে শান্তিরক্ষা বাহিনী প্রেরণ করতে হবে।’ 

সেমিনারে আরও বক্তব্য দেন নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, গণফোরামের কেন্দ্রীয় নেতা সুব্রত চৌধুরী, বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা সুকোমল বড়ুয়া প্রমুখ।



  0

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

কিছু সহিংসতা ও অনিয়ম হলেও সামগ্রিকভাবে ইউপি নির্বাচন সুষ্ঠু হয়েছে—সিইসির এই বক্তব্যের সঙ্গে আপনি একমত?