সোমবার, ১০ ডিসেম্বর ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

বৃহস্পতিবার, ১২ জুলাই, ২০১৮, ০৩:০৪:৫৬

ভারত নয়-কার্লাইলকে বাংলাদেশে প্রবেশে বাধা কেন?: মঈন খান

ভারত নয়-কার্লাইলকে বাংলাদেশে প্রবেশে বাধা কেন?: মঈন খান

ঢাকা : বিএনপির চেয়ারপার্সনের ব্রিটিশ আইনী পরামর্শক লর্ড কার্লাইলকে ভারত নয় বাংলাদেশে প্রবেশে বাধা কেন? সরকারে কাছে জানতে চেয়েছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড.আব্দুল মঈন খান।

তিনি বলেন, বিএনপির চেয়ারপার্সনের ব্রিটিশ আইনী পরামর্শক লর্ড কার্লাইলকে দিল্লী থেকে ব্রিটেনে ফেরত যেতে হয়েছে। ভারতে আসতে দিলো না দিলো কেন তা ভারতই ভালো জানে। আমি এ বিষয়ে কিছু বলবো না। এটা ভারত সরকারের বিষয়। কিন্তু তিনি বাংলাদেশ আসতে পারলো না কেন? প্রশ্নটি আজকে সরকারকে করতে চাই। একজন মানুষের আইনি অধিকার পাওয়ার অধিকার আছে। মানুষের অধিকারের আইন পার্লামেন্টে পাশ হয় না। আইনি অধিকার জন্মগত অধিকার। খালেদা জিয়া সে অধিকার থেকে বঞ্চিত।

বৃহস্পতিবার (১২জুলাই) জাতীয় প্রেসক্লাবের কনফারেন্স লাউঞ্জে ডক্টরস এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ড্যাব)কতৃক আয়োজিত বেগম খালেদা জিয়া’র চিকিৎসায় অবহেলা ও মানবাধিকার লঙঘন শীর্ষক আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন।

আওয়ামী লীগকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, আপনারা (আওয়ামী লীগ) কী আপনাদের ইতিহাস ভুলে গেছেন? টমাস উইলিয়সকে আগরতলা মামলার আইনজীবী নিয়োগ করা হয়েছিল। সেই দিন তিনি বাংলাদেশে এসে আওয়ামী লীগের নেতার পক্ষে ওকালতি করেন নাই? নিজের ইতিহাস যখন নিজে ভুলে যায়, তার ভবিষ্যৎ কিন্তু ভালো হয় না!

বিএনপির এই নেতা বলেন, খালেদা জিয়াকে আইনি অধিকার থেকে বঞ্চিত করে কোনো নির্বাচন করতে দেয়া হবে না। কেউ যদি খালেদা জিয়াকে কারাগারে রেখে দেশে কোনো নির্বাচন হবে তা ভেবে থাকে তাহলে তা ভুল।

আয়োজক সংগঠনের সভাপতি ডা. একেএম আজিজুল হকের সভাপতিত্বে সভায় বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ফরহাদ হালিম ডোনার, ভাইস চেয়ারম্যান শতকত মাহমুদ, গণশিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক অধ্যক্ষ সেলিম ভূইয়া বক্তব্য রাখেন।

আজকের প্রশ্ন

সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন ‘খালেদা জিয়ার শারীরিক অসুস্থতা নিয়ে বিএনপির নেতারা মিথ্যাচার ও বিভ্রান্তি করছে। আপনিও কি তাই মনে করেন?