সোমবার, ১৯ নভেম্বর ,২০১৮

Bangla Version
SHARE

বুধবার, ০৭ নভেম্বর, ২০১৮, ০২:২৮:১১

সংলাপে যে প্রস্তাব দিল ঐক্যফ্রন্ট

সংলাপে যে প্রস্তাব দিল ঐক্যফ্রন্ট

ঢাকা : গণভবনে প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার সঙ্গে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের দ্বিতীয় দফা সংলাপ শুরু হয়েছে। সংলাপে অংশ নিতে বুধবার (৭ নভেম্বর) সাড়ে ১০টার দিকে গণভবনে পৌঁছেন ড. কামাল হোসেন নেতৃত্বে ঐক্যফ্রন্টের নেতৃবৃন্দ।

এর আগে, বুধবার সকাল পৌনে ১০টায় ড. কামাল হোসেনের বেইলি রোডের বাসা থেকে তারা রওয়ানা করেন।

জানা যায়, বেলা ১১টার পরে গণভবনে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ঐক্যফ্রন্টের সংলাপ শুরু হয়।

বহুল প্রত্যাশিত প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে এ সংলাপে প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগ ও সংসদ ভেঙে দেওয়া ও ১০ সদস্যের নিরদলীয় নিরপেক্ষ নির্বাচনকালীন সরকার গঠনের প্রস্তাব দিয়েছেন ড. কামাল হোসেন।

এছাড়াও নির্বাচন কমিশন পুনর্গঠন এবং বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির প্রস্তাব দিয়েছেন ঐক্যফ্রন্টের এই শীষ নেতা।

আজ বুধবার গণভবনে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে চলা সংলাপে এ প্রস্তাব দেন তিনি।

সংলাপে আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ১৪ দলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতৃত্ব দিচ্ছেন ড. কামাল হোসেন। এখনও বৈঠক চলছে। তবে এখনও পর্যন্ত উভয়পক্ষ কোন বিষয়ে সমঝোতায় আসতে পারেনি বলে জানা গেছে।

ড. কামালের দেয়া লিখিত এসব প্রস্তাবের বিষয়ে আ’লীগ নেতারা তাদের বক্তব্য দিয়েছেন। আওয়ামী লীগের নেতারা বলেছেন, সংবিধানের আলোকেই আগামী নির্বাচন (একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন) অনুষ্ঠিত হবে। তারা আরও বলেছেন, এই সংবিধানের বাইরে আপনি এসব প্রস্তাব করছেন কেন?

তারা বলেন, একইসঙ্গে যে উপদেষ্টা পরিষদ গঠন করার কথা বলা হয়েছে, সে নির্দলীয় উপদেষ্টা পরিষদের উপদেষ্টা কারা থাকবেন এই সদস্যদের নাম বলতে পারেননি প্রস্তাবকারীরা।

অন্যদিকে, জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতাদের মধ্যে রয়েছেন- নেতা ড. কামাল হোসেন, জেএসডির সভাপতি আ স ম আব্দুর রব, বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহ‌মদ, গণফেরামের মহাসচিব মোস্তফা মহ‌সিন মন্টু, গণফোরামের কার্যকরী সভাপতি অ্যাডভোকেট সুব্রত ‌চৌধুরী, নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, নাগরিক ঐক্যের উপদেষ্টা এস এম আকরাম, জেএসডির সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মা‌লেক রতন, জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার কেন্দ্রীয় নেতা সুলতান মোহাম্মদ মনসুর।

প্রসঙ্গত, গত ১ নভেম্বর প্রথম দফা সংলাপ অনুষ্ঠিত হয়।

আজকের প্রশ্ন

সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন ‘খালেদা জিয়ার শারীরিক অসুস্থতা নিয়ে বিএনপির নেতারা মিথ্যাচার ও বিভ্রান্তি করছে। আপনিও কি তাই মনে করেন?