বৃহস্পতিবার, ১৪ নভেম্বর ,২০১৯

Bangla Version
  
SHARE

সোমবার, ২৪ জুন, ২০১৯, ০২:১৮:২৩

নয়াপল্টনে ককটেল-বৃষ্টি, কার্যালয় ছাড়ছে বিক্ষুব্ধ ছাত্রদল

নয়াপল্টনে ককটেল-বৃষ্টি, কার্যালয় ছাড়ছে বিক্ষুব্ধ ছাত্রদল

ঢাকা : ১২ নেতার বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার ও বয়সসীমা নির্ধারণ না করে ধারাবাহিক কমিটি গঠনের দাবিতে বিক্ষুব্ধ ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা পূর্বঘোষিত অবস্থান কর্মসূচি শেষে চলে যাওয়ার সময় নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের আশপাশ এলাকায় অন্তত ৫টি ককটেলের বিস্ফোরণ ঘটিয়েছে। এছাড়া আরও একটি ককটেল অবিস্ফোরিত অবস্থায় দেখা গেছে।

সোমবার (২৪ জুন) দুপুর সোয়া ১টার পরে মুহূর্মুহু এই ককটেল বিস্ফোরণ হয়।

তবে এই ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনায় কারা জড়িত সে সম্পর্কে তাৎক্ষণিকভাবে কিছু জানা যায়নি।

এর আগে ছাত্রদলের ১২ নেতার বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহারসহ বয়সসীমা তুলে দিয়ে নিয়মিত কমিটির দাবিতে বেলা সাড়ে ১১ টার দিকে সংগঠনটির সহস্রাধিক নেতাকর্মীর একটি মিছিল নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে এসে জড়ো হয়।

এসময় বিক্ষুব্ধ ছাত্রদল নেতাকর্মীরা কার্যালয়ের সামনে অবস্থান নিয়ে বিভিন্ন শ্লোগান দিতে থাকেন। তারা কার্যালয়ের কলাপসিবল গেট বন্ধ করে দেন।

একইসময়ে আন্দোলনকারীদের প্রতিহত করতে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের ভেতরে ও আশপাথে ছাত্রদল, যুবদল, স্বেচ্ছাসেবক দল ও মহানগর বিএনপির কয়েকশ নেতাকর্মী অবস্থান নেন। এরই এক পর্যায়ে উত্তেজিত আন্দোলনকারীরা কার্যালয়ের গেট বন্ধ করে দিতে চাইলে দু’পক্ষের মধ্যে বাকবিতণ্ডা ও টানাহেঁচড়ার ঘটনাও ঘটে।

গতকাল রবিবার (২৩ জুন) দুপুরে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে ছাত্রদলের কাউন্সিলের জন্য ১৫ জুলাই তারিখ ঘোষণা করেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ও ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি শামসুজ্জামান দুদু।

দলীয় শৃঙ্খলা বহির্ভূত কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকার সুস্পষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে গত ২২ জুন ছাত্রদলের ১২ জনকে দলের প্রাথমিক সদস্য পদসহ সকল পর্যায়ের পদ থেকে বহিষ্কার করা হয়।

গত ৪ জুন রাতে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবীর রিজভী স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে ছাত্রদলের মেয়াদোত্তীর্ণ কেন্দ্রীয় সংসদ বাতিল করা হয়। বিজ্ঞপ্তিতে পরবর্তী ৪৫ দিনের মধ্যে কাউন্সিলরদের মতামতের ভিত্তিতে নতুন কেন্দ্রীয় সংসদ গঠনের কথা জানানো হয়।

এর পর থেকেই ছাত্রদলের বিলুপ্ত কমিটির একটি অংশ লাগাতার আন্দোলন কর্মসূচি ও বিক্ষোভ শুরু করে। এরই ধারাবাহিকতায় গত ১১ জুন তারা বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের প্রধান ফটকে তালা ঝুলিয়ে বিক্ষোভ প্রদর্শন করে।

আজকের প্রশ্ন

বিএনপি নেতা ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেছেন, পুলিশের ওপর নির্বাচন কমিশনের কোনো নিয়ন্ত্রণ নেই। আপনিও কি তা-ই মনে করেন?