মঙ্গলবার, ১২ নভেম্বর ,২০১৯

Bangla Version
  
SHARE

শুক্রবার, ০৮ নভেম্বর, ২০১৯, ০৯:৩২:১৪

বিএনপির নেতিবাচক রাজনীতির কারণে নেতারা দল ছাড়ছেন : তথ্যমন্ত্রী

বিএনপির নেতিবাচক রাজনীতির কারণে নেতারা দল ছাড়ছেন : তথ্যমন্ত্রী

ঢাকা: তথ্যমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, নেতিবাচক রাজনীতির কারণে বিএনপি নেতারা দল ছাড়ছেন। তিনি বলেন, বিএনপির জ্বালাও পোড়াও রাজনীতির কারণে ইতিপূর্বে বিএনপি নেতা এম মোরশেদ খান ও লেফটেনেন্ট জেনারেল (অব) মাহবুবুর রহমান দল ছেড়েছেন। আরও অনেকে দল থেকে পদত্যাগ করবেন বলে নাম শোনা যাচ্ছে।

মন্ত্রী শুক্রবার রাজধানীর ইনস্টিটিউশন অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স বাংলাদেশ (আইডিইবি) মিলনায়তনে প্রতিষ্ঠানটির ৪৯তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী ও গণপ্রকৌশল দিবসের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, দূর থেকে স্কাইপির মাধ্যমে রাজনীতি নিয়ন্ত্রণ করার ফল হচ্ছে গণহারে দল ত্যাগ। বিএনপি নেতা মোর্শেদ খান নিজেই বলেছেন বিএনপি এখন জাতীয়তাবাদী স্কাইপি দলে রূপান্তরিত হয়েছে। এটা আমার বক্তব্য নয়। তাদের নেতিবাচক রাজনীতির কারণেই তাদের নেতারা দল ছেড়ে চলে যাচ্ছেন।
হাছান মাহমুদ বলেন, ‘আমরা চাই, বিরোধী রাজনৈতিক দল আমাদের সমালোচনা করুক। বিএনপি একটি শক্তিশালী বিরোধীদল হিসেবে সংসদে এবং সংসদের বাইরে থাকুক। কিন্তু নেতিবাচক রাজনীতির কারণে তাদের শক্তি ক্রমেই ক্ষয় হয়ে যাচ্ছে। তারা ঘুরে দাঁড়াতে পারছে না। আমরা চাইলেও তারা শক্তি ধরে রাখতে পারছেন না।’

তথ্যমন্ত্রী বলেন, পৃথিবীর কোনো দেশের সরকার অতীতেও শতভাগ নির্ভুল কাজ করতে পারেনি এবং ভবিষ্যতেও পারবে না। তাই ভুল হলে অবশ্যই সমালোচনা হবে। কিন্তু যেসব ভালো কাজ হচ্ছে সেগুলোরও প্রশংসা হওয়া প্রয়োজন। সেটি না হলে দেশ এগিয়ে যাবে না।

ডিপ্লোমা প্রকৌশলীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, দেশে কারিগরি শিক্ষা তথা কারিগরি শক্তি বৃদ্ধি হওয়া প্রয়োজন। দক্ষ কারিগরি শক্তি না থাকায় আমাদের দেশে বিদেশীরা কাজ করে মোটা অংকের বৈদেশিক মুদ্রা নিয়ে যাচ্ছে। কারিগরি শিক্ষার অভাবে মাস্টার্স পাস ছেলে-মেয়েরা কেরানির চাকরির জন্য বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে আবেদন করছে। সে কারণে বেশি করে কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলা প্রয়োজন।

হাছান মাহমুদ বলেন, বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা বিনির্মাণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যে লক্ষ্য নিয়ে কাজ করে যাচ্ছেন সেটি এগিয়ে নিতে ডিপ্লোমা প্রকৌশলীদের সহায়তা করতে হবে। দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। আমাদের দেশে মোবাইল ব্যাংকিং অর্থনীতির বিষয় বিশ্বের বিভিন্ন দেশের নেতারা প্রশংসা করছেন।
পাকিস্তান সরকার আমাদের উন্নয়ন দেখে আক্ষেপ করছে। ভারত সরকার এবং সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা সেদেশে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নের প্রশংসা করছেন। দেশে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ হয়ে আমাদের কাজ করতে হবে।
আইডিইবির সভাপতি একেএমএ হামিদ এর সভাপতিত্বে সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন শিক্ষা উপমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, এছাড়াও আইডিইবির সাধারণ সম্পাদক মো. শামসুর রহমানসহ অনেকে বক্তব্য রাখেন। সূত্র : বাসস

 

এই বিভাগের আরও খবর

  আওয়ামী লী‌গের ডিএনএ টেস্ট করা দরকার: আলাল

  বিএনপিতে যত মুক্তিযোদ্ধা আছে আ.লীগে তা নেই: মওদুদ

  এবার সম্রাট ও আরমানের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

  ক্ষমা চেয়ে লাভ নেই জনগণ ক্ষমা করবেনা, রাঙ্গাকে কাদের

  ৩০ বছর আ.লীগ করে সাধারণ সম্পাদক পদে ফরম তুললেন অলিউল ইসলাম'

  খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে রাজধানীতে বিক্ষোভ

  গয়েশ্বর নিজেই কখন বিএনপি থেকে চলে যায় সেটা দেখার বিষয় : তথ্যমন্ত্রী

  খালেদা জিয়ার অঙ্গ-প্রত্যঙ্গগুলো পঙ্গু হয়ে যাচ্ছে: ফখরুল

  নূর হোসেনকে মাদকাসক্ত বলে ক্ষমা চাইলেন রাঙ্গা

  জামায়াত-শিবির নাম দিয়ে সরকার আবরার হত্যা জায়েজ করেছে: রুমিন

  পার্টি থেকে দূষিত রক্ত বের করে দেয়া হবে: কাদের

আজকের প্রশ্ন

বিএনপি নেতা ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেছেন, পুলিশের ওপর নির্বাচন কমিশনের কোনো নিয়ন্ত্রণ নেই। আপনিও কি তা-ই মনে করেন?