সোমবার, ১০ আগস্ট ,২০২০

Bangla Version
  
SHARE

বৃহস্পতিবার, ০৫ ডিসেম্বর, ২০১৯, ০২:১৩:২৬

নয়াপল্টন থেকে বিএনপির ৭ জনকে তুলে নিয়ে গেছে পুলিশ

নয়াপল্টন থেকে বিএনপির ৭ জনকে তুলে নিয়ে গেছে পুলিশ

ঢাকা : রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে দলটির ৭ কর্মীকে তুলে নিয়ে গেছে পল্টন থানা পুলিশ ও সাদা পোশাকধারী গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)।

বৃহস্পতিবার (৫ ডিসেম্বর) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে ২ জন ও কার্যালয়ের আশপাশ থেকে আরও ৫ কর্মীকে আটক করে নিয়ে যায় ডিবি পুলিশ।

তাৎক্ষণিকভাবে আটককৃতদের নাম জানা যায়নি। তবে এরা সবাই বিএনপির সাধারণ কর্মী বলে জানা গেছে।

প্রত্যক্ষর্শীরা জানায়, বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের নিচতলার বইয়ের দোকানের সামনে শান্তিপূর্ণ অবস্থান করছিলেন তারা। এসময় পল্টন থানা পুলিশ ও গোয়েন্দা পুলিশ তাদের আটক করে নিয়ে যায়।

এ ব্যাপারে মতিঝিল জোনের সহকারী উপ-কমিশনার (এসি) জাহিদুল ইসলাম ব্রেকিংনিউজকে বলেন, ‘৭ জন আটকের খবর আমিও পেয়েছি। তবে তাদের কারা আটক করেছে বিষয়টি এখনও নিশ্চিত না। সাদা পোশাকে ডিবি পুলিশ আটক করতে পারে।’

এর আগে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার জামিন শুনানি আবারও পিছিয়ে দেয়ায় দুপুর ১২টার দিকে জাতীয়তাবাদী মহিলা দলের সভাপতি আফরোজা আব্বাস, মহিলা দলের সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হেলেন জেরিন খানসহ বেশ কিছু নারী নেত্রীদের নয়াপল্টনে বিক্ষোভ মিছিল করতে দেখা যায়।

এদিকে চ্যারিটেবল মামলায় সাজাপ্রাপ্ত বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার জামিন শুনানিকে কেন্দ্র করে এদিন সকাল থেকেই নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কাযালয়ের সামনে পুলিশের বিপুলসংখ্যক সদস্যের উপস্থিতি লক্ষ্য করা যায়।

জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় ৭ বছরের সাজাপ্রাপ্ত বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার জামিন শুনানি ফের পিছিয়ে আগামী ১২ ডিসেম্বর শুনানির জন্য পরবর্তী দিন ধার্য করেছেন আপিল বিভাগ। ১২ ডিসেম্বরের মধ্যে সাবেক এই প্রধানমন্ত্রীর ‘শারীরিক অবস্থার সবশেষ অবস্থা’ জানিয়ে প্রতিবেদন দাখিল করতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

বৃহস্পতিবার (৫ ডিসেম্বর) জামিন শুনানি শেষে প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বাধীন আপিল বিভাগের পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

এদিকে বেগম জিয়ার জামিন আদেশ পেছানোকে কেন্দ্র করে সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের এজলাস কক্ষে নজিরবিহীন হট্টগোলের ঘটনা ঘটেছে। এক পর্যায়ে ১২ ডিসেম্বর পর্যন্ত বেগম জিয়ার জামিন শুনানি মুলতবি করে এজলাস ছেড়ে যান প্রধান বিচারপতি।

আদেশ দেয়ার পরই আদালতে অবস্থানরত বিএনপিপন্থি আইনজীবীরা ‘এ আদেশ মানি না’ বলে উচ্চস্বরে কথা বলতে থাকেন। এসময় রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবীরা বিএনপিপন্থি আইনজীবীদের শ্লোগানের বিরোধিতা করলে শুরু হয় হট্টগোল, দুপক্ষের বাকবিতণ্ডা।

এই বিভাগের আরও খবর

  উপমহাদেশের অনন্য সুরকার আলাউদ্দিন আলী বেঁচে থাকবেন তার সংগীতে : তথ্যমন্ত্রী

  বিদেশি প্রভুর ওপর ভর করে ক্ষমতায় যাওয়া আমাদের নীতির মধ্যে পড়ে না: আলাল

  বিচারবর্হিভূত সব হত্যাকান্ডের বিচার দাবি গয়েশ্বরের

  রাজশাহী জেলা ছাত্রদলের ১১টি ইউনিট কমিটি ঘোষণা

  ‘রাজনৈতিক পরিচয় কোনো অপরাধীর আত্মরক্ষার ঢাল হতে পারে না’

  খালেদার সাজা স্থগিতাদেশের মেয়াদ বাড়াতে আবেদন করবে পরিবার: ফখরুল

  বাস-অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ৭

  ঘরে বসে সরকারের সমালোচনা করবেন না: বিএনপিকে তথ্যমন্ত্রী

  শেখ ফজিলাতুন্নেছা ছিলেন বঙ্গবন্ধুর ‘সার্বক্ষণিক রাজনৈতিক সহযোদ্ধা’: কাদের

  ‘সিনহার ঘটনা ইস্যু করে সরকার হটানোর দিবাস্বপ্ন দেখছে কেউ কেউ’

  সরকার পরিকল্পিতভাবে ট্যানারি শিল্পকে ধ্বংসের প্রস্তুতি নিচ্ছে : রিজভী

আজকের প্রশ্ন

বিএনপির নেতারা আইন না বুঝেই মন্তব্য করে আইনমন্ত্রীর এমন বক্তব্যে আপনি কি একমত?