সোমবার, ১৩ জুলাই ,২০২০

Bangla Version
  
SHARE

সোমবার, ১৩ জানুয়ারী, ২০২০, ০৪:০৪:২০

বিধিমালা প্রণয়নকারীরাই এখন বিরোধিতা করছেন: ইসি মাহবুব

বিধিমালা প্রণয়নকারীরাই এখন বিরোধিতা করছেন: ইসি মাহবুব

ঢাকা : নির্বাচন বিধিমালা যারা প্রণয়ন করেছেন, তারাই এখন এর বিরোধিতা করছেন বলে মন্তব্য করেছেন নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার।

আজ সোমবার প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কেএম নূরুল হুদার কাছে আনঅফিসিয়াল নোট (ইউও) দিয়ে এমন মন্তব্য করেছেন তিনি। একইসঙ্গে তিনি এতে মন্ত্রী, এমপিদের নির্বাচন আচরণবিধি প্রতিপালনের জন্য একটি আলাদা পরিপত্র জারির দাবি তুলেছেন।

‘আসন্ন ঢাকা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে মন্ত্রী ও সংসদ সদস্যদের নির্বাচনী প্রচারণা বা কার্যক্রমে অংশগ্রহণ সম্পর্কে বিভ্রান্তি’ নিয়ে লেখা ওই নোটে তিনি বলেন, আসন্ন ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে প্রচারণায় ও কার্যক্রমে সংসদ সদস্যরা অংশগ্রহণ করছেন বলে বিগত ৯ জানুয়ারি ইউ, ও নোটের মাধ্যমে আমি উদ্বেগ প্রকাশ করেছিলাম।

মন্ত্রী ও সংসদ সদস্যদের নির্বাচনী প্রচারণায় ও কার্যক্রমে অংশগ্রহণ নিয়ে আমার সেই উদ্বেগ বর্তমানে আরও ঘণীভূত হয়েছে। কারণ গত কয়েকদিনে বিধিমালা নিয়ে বিভিন্ন বিভ্রান্তি লক্ষ্য করা যাচ্ছে। আমি মনে করি, বিদ্যমান আচরণবিধি অনুযায়ী নির্বাচন সম্পর্কিত যেকোনো কমিটিতে মন্ত্রী ও সংসদ সদস্যদের অংশগ্রহণের সুযোগ নেই।

এই নির্বাচনী কার্যক্রম ঘরে বা বাইরে যেকোনো স্থানে হতে পারে। এ বিষয়ে আচরণ বিধিমালা, ২০১৬ সালের বিধান অত্যন্ত সুস্পষ্ট। সর্বাধিক দুঃখজনক বিষয় হচ্ছে, এই বিধিমালা যারা প্রণয়ন করেছেন, তারাই এখন এর বিরোধিতা করছেন।

‘আচরণ বিধিমালা সম্পর্কে যাতে কোনো ধরনের বিভ্রান্তির অবকাশ না থাকে, সেজন্য নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে সুস্পষ্ট নির্দেশনাসহ একটি পরিপত্র জারি করা অত্যাবশ্যক। না হলে এসব বিভ্রান্তি সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করবে।’
‘আসন্ন ঢাকা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ভোটে আচরণবিধি কঠোরভাবে পরিপালন নিশ্চিত করতে না পারলে নির্বাচন কমিশন আস্থার সংকটে পড়বে, যা কোনোভাবেই কাম্য নয়।’

ইউও নোটটি তিনি ঢাকা দুই সিটি নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তাদের কাছেও পাঠিয়েছেন। যার অনুলিপি অন্য নির্বাচন কমিশনারদেরও দিয়েছেন তিনি।

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ এমপিরা প্রচারে এবং নির্বাচনী কার্যক্রমে অংশ নিতে পারবেন না বলে আচরণবিধিকে স্ববিরোধী বলেছেন। এতে দলটি লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড নেই বলেও দাবি করেছে। আগামী ৩০ জানুয়ারি ঢাকার দুই সিটি নির্বাচনের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

এই বিভাগের আরও খবর

  দেশে কি কোনও সরকার আছে: মান্নার প্রশ্ন

  আ.লীগে লোভী-ষড়যন্ত্রকারীদের আর সুযোগ নেই: কাদের

  রিজেন্ট-জেকেজির ‘নৈপথ্য গডফাদাররা’ ধরাছোঁয়ার বাইরে কেন: রিজভী

  'জেকেজি-রিজেন্ট' প্রমান করেছে স্বাস্থ্য খাত হরিলুটের ক্ষেত্র : ন্যাপ

  ‘স্বাস্থ্য খাত এখন দুর্নীতি আর হরিলুটের বড় ক্ষেত্র’

  ছাত্রদল নেতাকে নির্মমভাবে কুপিয়ে হত্যায় কেন্দ্রীয় ছাত্রদলের তীব্র নিন্দা

  রিজেন্ট কেলেঙ্কারিতে অবিলন্বে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর পদত্যাগ করা উচিত: মির্জা ফখরুল

  ভোট জালিয়াতের কাছে 'করোনা সনদ জালিয়াতি' অপরাধ নয় : ডাঃ ইরান

  ‘বিষোদগার ছাড়া’ বিএনপি কিছুই দিতে পারেনি জাতিকে: কাদের

  ‘দুর্গতদের পাশে দাঁড়ানো বিএনপি ওপর জুলুম করছে সরকার’

  সমালোচনার বাক্স নিয়ে বসেছে বিএনপি: তথ্যমন্ত্রী

আজকের প্রশ্ন

বিএনপির নেতারা আইন না বুঝেই মন্তব্য করে আইনমন্ত্রীর এমন বক্তব্যে আপনি কি একমত?