শুক্রবার, ২৩ আগস্ট ,২০১৯

Bangla Version
  
SHARE

বৃহস্পতিবার, ০৮ আগস্ট, ২০১৯, ০১:২২:৫৬

৩৭০ অনুচ্ছেদ রদের পর গুগল সার্চে শীর্ষে ‘কাশ্মীরি গার্ল’

৩৭০ অনুচ্ছেদ রদের পর গুগল সার্চে শীর্ষে ‘কাশ্মীরি গার্ল’

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ২০১৬ সালে মুক্তি পাওয়া বলিউডের ‌‘দঙ্গল’ সিনেমায় অভিনয় করে রাতারাতি তারকা বনে যান কাশ্মীরের মেয়ে জাইরা ওয়াসিম। ছবি : সংগৃহীত

ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার জম্মু-কাশ্মীর ইস্যুতে সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদ বিলোপের পর গোটা ভারতে এখন সবচেয়ে বেশি আলোচনা হচ্ছে কাশ্মীরি মেয়েদের নিয়ে। গতকাল বুধবার ভারতের উত্তরপ্রদেশের বিজেপি বিধায়ক বিক্রম সিং প্রকাশ্যে বলেন, ‘এখন থেকে ফর্সা কাশ্মীরি মেয়েদের সঙ্গে উত্তরপ্রদেশসহ ভারতের যেকোনো রাজ্যের অবিবাহিত যুবকদের বিয়ে দেওয়া যাবে।’

তবে শুধু বিক্রম সিং নয়, ভারতের বিভিন্ন প্রান্তের অবিবাহিত পুরুষরা এখন কাশ্মীরি মেয়েদের নিজেদের জীবনসঙ্গী হিসেবে পাওয়ার স্বপ্ন দেখছেন।

গুগলের দেওয়া তথ্য বলছে, ৩৭০ অনুচ্ছেদ বিলোপের পরেই ভারতে গুগল সার্চের ট্রেন্ডিংয়ে এক নম্বরে উঠে এসেছে কাশ্মীর। যেখানে কাশ্মীরি মেয়েদেরই সবচেয়ে বেশি খোঁজা (সার্চ) হয়েছে ভারতের বিভিন্ন প্রান্তে। মূলত গুগলে দুটি কি-ওয়ার্ড দিয়ে সবচেয়ে বেশি সার্চ করা হয়েছে। যার মধ্যে একনম্বরে রয়েছে ‘কাশ্মীরি গার্ল’ এবং দুই নম্বরে রয়েছে ‘কাশ্মীরি গার্লস’।

গুগল সার্চের প্রবণতা বলছে, জম্মু-কাশ্মীর থেকে ৩৭০ অনুচ্ছেদ বিলোপ হওয়ার পর কাশ্মীরি মেয়েদের সহজলভ্য ভাবতে শুরু করেছেন অনেকেই। এর আগে ভারতের অনেকেরই ধারণা ছিল, জম্মু-কাশ্মীরে ৩৭০ অনুচ্ছেদ চালু থাকার ফলে কাশ্মীরি মেয়েদের অন্য রাজ্যের পুরুষদের বিয়ে করার অধিকার ছিল না। যে ধারণা আদৌ সত্যি নয়। আসল সত্যিটা ছিল, কাশ্মীরি মেয়েরা অন্য রাজ্যের পুরুষদের বিয়ে করতে পারতেন। তবে সে ক্ষেত্রে অন্য রাজ্যে বিয়ে করলে কাশ্মীরি মেয়েদের জম্মু-কাশ্মীরের নাগরিকত্ব হারাতে হতো। পাশাপাশি তাঁদের মা-বাবার সম্পত্তির ওপর কোনো অধিকার থাকত না।

কিন্তু ৩৭০ অনুচ্ছেদ বিলোপের পর সেসব বাধা আর থাকল না। এবার থেকে কাশ্মীরি মেয়েদের বিয়ে করতে পারলেই থাকবে সব সুযোগ-সুবিধা। ভারতের অনেকে পুরুষের ফ্যান্টাসিতে কাশ্মীরি মেয়েরা আনাগোনা করে। তবে সে ফ্যান্টাসিতে দেয়াল হয়ে দাঁড়িয়েছিল ৩৭০ অনুচ্ছেদ। সে দেয়াল এবার ভেঙে পড়তেই কাশ্মীরি মেয়েদের পাওয়ার স্বপ্নে বিভোর হয়েছেন ভারতের বহু পুরুষ।

গুগলে ‘ম্যারি কাশ্মীরি গার্ল’ লিখে সবচেয়ে বেশি সার্চ হয়েছে ভারতের শিক্ষিত রাজ্য বলে পরিচিত কেরালায়। কেরালার পুরুষরাই বেশি সার্চ করেছেন। এর পরেই রয়েছে ভারতের কর্ণাটক রাজ্য। তার পরেই রয়েছে দিল্লি, মহারাষ্ট্র ও তেলেঙ্গানা রাজ্য। গুগলে কাশ্মীরি মেয়েদের নিয়ে সার্চের তালিকায় ষষ্ঠ স্থানে রয়েছে পশ্চিমবঙ্গ। এর পর সপ্তম ও অষ্টম স্থানে রয়েছে তামিলনাড়ু ও উত্তরপ্রদেশ।

আজকের প্রশ্ন

বিএনপি নেতা ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেছেন, পুলিশের ওপর নির্বাচন কমিশনের কোনো নিয়ন্ত্রণ নেই। আপনিও কি তা-ই মনে করেন?