শুক্রবার, ০৭ আগস্ট ,২০২০

Bangla Version
  
SHARE

শুক্রবার, ২০ ডিসেম্বর, ২০১৯, ০১:৫৫:৪২

স্বামীকে ফাঁকি দিয়ে ডেটিংয়ে স্ত্রী, অতঃপর...

স্বামীকে ফাঁকি দিয়ে ডেটিংয়ে স্ত্রী, অতঃপর...

স্বামীকে ফাঁকি দিয়ে ভালোই চলছিল পরকীয়া। কিন্তু স্বামীকে বোকা বানাতে বানাতে এবার নিজেই বোকা বনে গেলেন স্ত্রী। আর সেজন্য দিতে হলো চপড়া মূল্য। জানা গেছে এমন কাণ্ডের জন্য প্রেমিকসহ পুলিশের জালে ধরা পড়েছেন ওই গৃহবধূ।

সম্প্রতি ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের শিয়ালদহে।

আনন্দবাজার পত্রিকা জানিয়েছে, স্ত্রী উদ্বিগ্ন কণ্ঠে স্বামীকে ফোন করে জানতে চেয়েছিলেন, ‘তুমি কি দুর্ঘটনায় পড়েছো?’ স্বামী জবাবে বলেছিল ‘না তো! কেন?’ স্ত্রী তখন বলেছিলেন, ‘বাড়িতে এক জন এসে বলছেন, তুমি নাকি দুর্ঘটনায় পড়েছো। তাই ফোন করলাম।’

এরপর বাড়ি ফিরে স্বামী দেখেন, স্ত্রী নেই। কিছুক্ষণ পর একটা অচেনা নম্বর থেকে স্বামীর কাছে ফোন আসে।

বলা হয়, ‘তোর স্ত্রীকে তুলে নিয়ে গিয়েছি। লাশ পৌঁছে যাবে।’

ফোন পেয়েই মঙ্গলবার থানায় ছুটে যান গুড্ডু। পুলিশকে সবটা খুলে বলেন। শুরু হয় তদন্ত।

ঘটনার দুদিনের মাথায় বুধবার দুপুরে শিয়ালদহের একটি হোটেল থেকে স্ত্রীকে উদ্ধার করে পুলিশ। জালে পড়েন আরও এক যুবক। তার নাম রাম পারভেজ ওরফে শেখ দিওয়ান।

দুজনের কাছ থেকে যা জানা গেছে, তাতে পুলিশও হতবাক! স্বামী গুড্ডুকে বোকা বানিয়ে অন্য কারও সঙ্গে প্রেম করছিলেন ওই নারী। দুজনে শিয়ালদহের এক হোটেলে লুকিয়ে ফোনে ভয় দেখাচ্ছিলেন গুড্ডুকে।

এর আগেও অবশ্য গুড্ডুকে বোকা বানিয়ে তারা বিভিন্ন জায়গায় থেকেছেন। কিন্তু সে বার পুলিশের ঝামেলায় পড়তে হয়নি। কিন্তু এবার তারা পড়েছেন ফাঁপড়ে।

ফোনে খুনের হুমকি পেয়ে থানায় অপহরণের অভিযোগ করেন গুড্ডু। এখন অপহরণের অভিযোগে ওই নারীর প্রেমিককে গ্রেফতারের প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে।

গুড্ডু পেশায় অটোচালক। রাম পারভেজ দিল্লির একটি বারে কর্মরত। কিছু দিন আগেই শহরে এসেছিলেন। প্রেমিকার সঙ্গে ফন্দি এঁটে শিয়ালদহের হোটেলে লুকিয়ে ছিলেন তারা।

আজকের প্রশ্ন

বিএনপির নেতারা আইন না বুঝেই মন্তব্য করে আইনমন্ত্রীর এমন বক্তব্যে আপনি কি একমত?