শুক্রবার, ১৫ ডিসেম্বর ,২০১৭

Bangla Version
  
SHARE

সোমবার, ০৪ ডিসেম্বর, ২০১৭, ০৮:২৬:২৬

সহায়ক সরকারের রূপরেখা বিএনপির একটি কৌশল!

সহায়ক সরকারের রূপরেখা বিএনপির একটি কৌশল!

ঢাকা: তত্ত্বাবধায়ক বা নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকার অধীনে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে- এই দাবি বিএনপির দীর্ঘ দিনের। তবে সময়ের প্রয়োজনের কৌশলগত কারণে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের দাবি থেকে সরে এসে সহায়ক সরকারের দাবিতে অনড় অবস্থানে দলটি। জানা গেছে, ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ না নিলেও এবার একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নিবে বিএনপি। দলের ৬ষ্ঠ কাউন্সিলে দলটির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া একাদশ জাতীয় নির্বাচনের জন্য তত্ত্বাবধায়ক সরকারের দাবি থেকে সরে এসে সহায়ক সরকারের বিষয়টি তুলে ধরেন। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পূর্বে সহায়ক সরকারের রূপরেখা ঘোষণার কথা বলেন।

কবে নাগাদ সহায়ক সরকারের রূপরেখা দেয়া হতে পারে এবং সরকার এই রূপরেখা না মানলে বিএনপি কি ধরনের পদক্ষেপ গ্রহণ করবে এমন প্রশ্নের জবাবে দলটির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু বলেন, সহায়ক সরকারের বিষয়টি চূড়ান্ত আছে। তবে দলগতভাবে এখনও সিদ্ধান্ত হয়নি এটা কবে ঘোষণা করা হবে। তবে আশা করা যায় খুব শীঘ্রই উপযুক্ত সময়েই তা জাতীর সামনে তুলে ধরা হবে।

তিনি বলেন, বিএনপি একটি গণতান্ত্রিক দল। আর আমরা গণতন্ত্রে বিশ্বাসী বলেই সরকারকে বার বার সমঝোতার প্রস্তাব দিয়ে আসছি। তাই সরকার যদি সমঝোতায় রাজি হয় ভালো তা না হলে কিভাবে দেশে সহায়ক সরকার প্রতিষ্ঠা করা যায় বিএনপি তা জানে। কেননা বিএনপি সমঝতা ও আন্দোলন দুটোর জন্যেই প্রস্তুত।

এ বিষয়ে দলটির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ও দলের সাবেক চীপ হুইপ জয়নুল আবেদীন ফারুক বলেন, সহায়ক সরকারের রূপরেখা আমাদের দলের নীতিনির্ধারক মন্ডলীর সদস্যদের ব্যাপার। তবে আমরা তো আন্দোলনে আছি। আমরা রাস্তায় আছি। খালি গাড়ি বন্ধ করে দিলেই রাস্তায় থাকা না। খালি রাস্তায় রাস্তায় হেটে চিৎকার করলেই রাস্তায় থাকা না। কৌশল আমরা ব্যবহার করছি। আমরা ঘরে ঘরে যাচ্ছি। বেগম খালেদা জিয়া, দলে এমন একটা পদক্ষেপ নিয়েছে নবায়ন। এবং নতুন সদস্য সংগ্রহ। এটাই তো বিএনপির জন্য বড় একটা কাজ। আমরা এখন সংঘবদ্ধ। যেকোনো ডাকেই আমরা প্রস্তুত। খালি গুলি না করলেই হলো। থানা-পুলিশ ধরে নিয়ে যাক রাজি আছি। শুধু গুলি করে না মারলেই হয়।

বিএনপি চেয়ারপারসনের আরেক উপদেষ্টা আতাউর রহমান ঢালী বলেন, এটাতো একটা কৌশলগত ব্যাপার। সহায়ক সরকারের রূপরেখা প্রস্তুত আছে সময় হলে আমাদের ম্যাডাম তা জাতীর সামনে তুলে ধরবেন। তিনি বলেন, মেয়র নির্বাচন গুলো দিয়ে আমরা সরকারের অবস্থান পর্যবেক্ষণ করছি। সহায়ক সরকারের রূপরেখা দিয়ে তো আর বসে থাকলে চলবে না। সরকার তা না মানলে মাঠে নামতে হবে। সেই জন্য আমরা সরকারের অবস্থান পর্যবেক্ষণ করছি। উপযুক্ত সময়ে সহায়ক সরকারের রূপরেখা দেয়া হবে।

আজকের প্রশ্ন

কিছু সহিংসতা ও অনিয়ম হলেও সামগ্রিকভাবে ইউপি নির্বাচন সুষ্ঠু হয়েছে—সিইসির এই বক্তব্যের সঙ্গে আপনি একমত?