শনিবার, ১৮ জানুয়ারী ,২০২০

Bangla Version
  
SHARE

মঙ্গলবার, ১৪ জানুয়ারী, ২০২০, ০৮:১৯:২৯

সিটি ভোটে একজোট, বিএনপিতে এমন ঐক্য নজিরবিহীন

সিটি ভোটে একজোট, বিএনপিতে এমন ঐক্য নজিরবিহীন

ঢাকা : ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে প্রার্থী দিয়েছে বিএনপি। উত্তরে ধীনের শীষ নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন বিএনপির ভাইস-চেয়ারম্যান আব্দুল আওয়াল মিন্টুর চেলে তাবিথ আওয়াল এবং দক্ষিণ প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন অবিভক্ত ঢাকা সিটি করপোরেশনের সর্বশেষ মেয়র প্রয়াত সাদেক হোসেন খোকার ছেলে প্রকৌশলী ইশরাক হোসেন।

জাতীয় নির্বাচনের পর অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ এই নির্বাচনের প্রচার-প্রচারণা শুরু হয়েছে গত ১০ জানুয়ারি। এরপর থেকেই ধানের শীষের এই দুই প্রার্থীর পক্ষে একজোটে মাঠে নেমেছেন বিএনপির শীর্ষ নেতারা। রাত-দিন ভোটের মাঠে কাজ করছেন তারা।

সবচেয়ে লক্ষণীয় হলো- রাজধানীর রাজনীতিতে তাদের দ্বন্দ্ব ও শত্রু ছিল তাদেরকে এক সঙ্গে দেখা গেছে। কথিত আছে মির্জা আব্বাস ও সাদেক হোসেন খোকা এক ঘাটে পানি খাননি। কিন্তু খোকার ছেলের পক্ষে মির্জা আব্বাসের অবস্থান ও পরিশ্রম সেই বিতর্ককে ঢেকে দিয়েছে। খোকাপুত্রকে পিতৃস্নেহে আগলে ভোটের মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন ঢাকা ও বিএনপির রাজনীতির অন্যতম এই প্রভাবশালী মির্জা আব্বাস।

মনোনয়ন জমা থেকে শুরু করে প্রচার-প্রচারণা সব জায়গাই মির্জা আব্বাসের সরব উপস্থিতি। তার স্ত্রী মহিলা দলের সভাপতি আফরোজা আব্বাসও ইশরাক হোসেনের পক্ষে অক্রান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন।

আব্বাসের সঙ্গে টানাপোড়েন ছিল তরুণ নেতা বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব হাবিব-উন নবী খান সোহেলের সঙ্গেও। তাকেও দেখা যাচ্ছে মির্জা আব্বাসের সঙ্গে। গত জাতীয় নির্বাচনের আগে সোহেলের গ্রেফতার নিয়ে বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ও ঢাকা মহানগর বিএনপির সদস্য সচিব আব্দুস সালামের দ্বন্দ্বের কথা শোনা গিয়েছিল। তারাও এখন একজোট।

এছাড়াও রাজনীতিতে ব্যক্তিগত দ্বন্দ্বের অভয়ারণ্য রাজধানীর তৃণমূলেও অতীত দ্বন্দ্ব ও শত্রুতা ভুলে ভোটের মাঠে বিএনপি নেতা-কর্মীরা এখন ঐক্যবদ্ধ। সিটি ভোটে তারা একসঙ্গে গণসংযোগ করছেন।

খোকার ছেলে ইশরাকের উচ্ছ্বসিত প্রশংসা করে মির্জা আব্বাস বলেন, ‘খোকাপুত্র ইশরাক হোসেন আমার পুত্রসম। ভালো ছেলে। সে একজন প্রকৌশলী। ঢাকার অলিগলি সবই তার চেনা। তার বাবা অবিভক্ত ঢাকার মেয়র ছিলেন। আজকে যে ঢাকার শব্দদূষণ বা বায়ুদূষণ তা নিয়ন্ত্রণের মধ্যেই এনেছিলেন খোকা। আমিও মেয়র থাকাকালে জলবদ্ধতা দূরীকরণসহ নগরীর সব সমস্যার সমাধান করেছি। কিন্তু আজ ঢাকা ১৩ বছর ধরে সমস্যার আবর্তে ঘুরপাক খাচ্ছে। ইশরাক হোসেন বিজয়ী হলে তার বাবা ও আমাদের অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে ভালো করবে বলে আমার বিশ্বাস।’

আব্বাসকে সঙ্গে পেয়ে উচ্ছ্বসিত খোকাপুত্র ইশরাকও। তিনি বলেন, ‘আঙ্কেল (মির্জা আব্বাস) আমাকে সার্বক্ষণিক দিকনির্দেশনা দিচ্ছেন। ভোটের প্রচার থেকে শুরু করে নির্বাচনী পরিকল্পনাসহ সব কাজেই বাবার মতো তাঁর সহযোগিতা পাচ্ছি। তিনি সব সময় শক্তি ও সাহস জোগাচ্ছেন। বাবার মতো ছায়া হয়ে আছেন আঙ্কেল।’

‘কেবল আঙ্কেলই (মির্জা আব্বাস) নন, আফরোজা আন্টিও আমার পাশে রয়েছেন। এক কথায় অভিভাবক হিসেবে যা যা করা দরকার তার সবই পাচ্ছি আব্বাস আঙ্কেল ও আফরোজা আন্টির কাছ থেকে’ বলেন ইশরাক।

আজকের প্রশ্ন

ঢাকার সিটি নির্বাচনে ইভিএম পদ্ধতিতে ভোট হলে জনগণের রায় প্রতিফলিত হবে না বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। আপনিও কি তাই মনে করেন?