বুধবার, ১৯ জুন ,২০১৯

Bangla Version
  
SHARE

শুক্রবার, ২৪ মে, ২০১৯, ১১:৩৪:২২

পাকিস্তানকে উড়িয়ে দিয়ে আফগানদের দুরন্ত সূচনা

পাকিস্তানকে উড়িয়ে দিয়ে আফগানদের দুরন্ত সূচনা

স্পোর্টস ডেস্ক: পাকিস্তানের বিপক্ষে বিশ্বকাপের প্রস্তুতি ম্যাচে উড়ন্ত সূচনা করেছে আফগানিস্তান। ২৬৩ রানের টার্গেট তাড়া করতে নেমে ৭ উইকেট হারিয়ে জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় রশিদ-নবীর দলটি।

উদ্বোধনী জুটিতে দুর্দান্ত ব্যাটিং করেন দুই ওপেনার মোহাম্মদ শেহজাদ ও হযরতউল্লাহ জাজাই। উদ্বোধনীতে ৮০ রান সংগ্রহ করে আফগানিস্তান।

তবে দুর্দান্ত ব্যাটিং করে যাওয়া আফগানিস্তানের সেরা ওপেনার মোহাম্মদ শেহজাদ ৬.৩ ওভারে হাঁটুতে ব্যথা অনুভব করেন। এরপর তার আর খেলা হয়নি। রিটায়ার্ডহার্ট হয়ে সাজঘরে ফেরার আগে ২৫ বলে ২৩ রান করেন শেহজাদ।

তার বিদায়ের পর রহমত উল্লাহকে সঙ্গে নিয়ে দুর্দান্ত ব্যাটিং করে যাওয়া হযরতউল্লাহ ফিফটির পথেই ছিলেন। কিন্তু দুর্ভ্যাগ আফগান এই ওপেনারের। মাত্র এক রানের জন্য ফিফটি করতে পারেননি।

পাকিস্তানের লেগ স্পিনার শাদাব খানের গুগলিতে বিভ্রান্ত হওয়ার আগে মাত্র ২৮ বলে আটটি চার ও দুই ছক্কায় ৪৯ রান করে ফেরেন হযরতউল্লাহ।

এর আগে টস জিতে ব্যাটিং করতে নামে পাকিস্তান। ইমাম উল হক আর ফাখর জামানের উদ্বোধনী জুটিতে উঠে ৪৭ রান। ইনিংসের নবম ওভারে ৩২ রান করে হামিদ হাসানের বলে ইমাম বোল্ড হয়ে গেলে ভাঙে এই জুটি।

১২তম ওভারে এসে জোড়া আঘাত হানেন মোহাম্মদ নবী। তিন বলের ব্যবধানে ফাখর জামান (১৯) আর হারিস সোহেলকে (১) বোল্ড করেন আফগান এই অফস্পিনার।

মোহাম্মদ হাফিজও বেশিদূর এগোতে পারেননি। রশিদ খানের শিকার হয়ে তিনি ফেরেন ১২ রানে। ১০০ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে তখন ধুঁকছে পাকিস্তান। সেখান থেকে পঞ্চম উইকেটে দলকে বাঁচানো এক জুটি গড়েন বাবর আর শোয়েব মালিক।

১০৩ রানের জুটিটি ভাঙে শোয়েব মালিক (৪৪) হাফসেঞ্চুরির দোরগোড়ায় এসে ধৈর্য্য হারালে। বাবর আজম একটা প্রান্ত ধরে লড়াই করে যাচ্ছিলেন। এরই মধ্যে অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ রশিদের শিকার ১৩ রানে।

শেষ পর্যন্ত ইনিংসের ৪৬তম ওভারে এসে বাবর আজমও সাজঘরে ফিরেন। ১০৮ বলে ১০ বাউন্ডারি আর ২ ছক্কায় ১১২ রান করে তিনি আউট হওয়ার পর পাকিস্তানের ইনিংস টিকেছে আর ১২ বল।

আজকের প্রশ্ন

বিএনপি নেতা ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেছেন, পুলিশের ওপর নির্বাচন কমিশনের কোনো নিয়ন্ত্রণ নেই। আপনিও কি তা-ই মনে করেন?