রবিবার, ২১ অক্টোবর ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

শুক্রবার, ১২ অক্টোবর, ২০১৮, ০২:১৫:২৪

ঘুরে আসুন ‘এশিয়ার সুইজারল্যান্ড’ ভুটান

ঘুরে আসুন ‘এশিয়ার সুইজারল্যান্ড’ ভুটান

ঢাকা : বাংলাদেশকে স্বীকৃতি দেয়া প্রথম দেশ ‘ভুটান’। ‘দ্যা ল্যান্ড অফ থান্ডার ড্রাগন’ নামে পরিচিত ভুটান দক্ষিণ এশিয়ার সার্ক ভুক্ত একটি দেশ যা পূর্ব হিমালয়ে অবস্থিত। উত্তরে চীন বাকি সবদিকে ভারত। সুউচ্চ পর্বতমালা, উর্বর উপত্যকা ও ঘন জঙ্গল এই নিয়েই প্রকৃতির কোল আলো করে রয়েছে ভারতের প্রতিবেশী এই ছোট দেশটি।

কয়েক শতকের রাজতন্ত্রকে বিদায় জানিয়ে দেশে এখন গণতান্ত্রিক উপায়ে নির্বাচিত সরকার। বর্তমান রাজা ২০১১ সালে বিয়ে করেছেন। ভুটানের বর্তমান রানী জেটসান পেমা। সম্প্রতি তাদের ঘর আলো করে জন্মগ্রহণ করেছে রাজপুত্র। রাজা-রানী দুজন মানুষই গোটা ভুটানের সবার ভালোবাসার পাত্র।

নিজেদের সংস্কৃতি ও ঐতিহ্যের লালনে এরা বহির্বিশ্ব থেকে একটু আলাদা। ১৯৯৯ সাল থেকে এদেশে পলিথিন নিষিদ্ধ। তাছাড়া তামাক সেখানে সম্পূর্ণ অবৈধ। দেশটির ৬০ শতাংশ জুড়ে বনভূমি।

ভুটানে জীবনযাপনের মান বিচার করা হয় গ্রস ন্যাশনাল হ্যাপিনেস (জিএনএইচ) এর মাধ্যমে। বর্তমানে ঘেরাটোপ থেকে বেরিয়ে আন্তর্জাতিকতার স্বাদ নিচ্ছেন দেশের মানুষ। স্বাগত জানাচ্ছেন আধুনিক প্রযুক্তিকে। সেই লক্ষ্যে ২০১২ সালে থিম্পুতে গড়ে তোলা হয় ‘থিম্পু টেক পার্ক’। গড় আয়ু পুরুষের ৬৬ বছর এবং নারীর ৭০ বছর।

তীর নিক্ষেপ ভুটানের জাতীয় খেলা। আরেকটি ঐতিহ্যবাহী খেলা হলো দিগর। এছাড়া ফুটবল ভুটানের সবচেয়ে জনপ্রিয় খেলা। ভুটানের অন্যতম প্রধান উৎসব হলো ‘পারো সেচু’ উৎসব। সেচু মানে হলো চাঁদের দশম দিন। মূলত ভান্তেদের নাচের উৎসব এটি।

ভুটানিরা মরিচকে একটি সবজি মনে করে। ঝাল প্রিয় ভুটানিদের প্রধান খাবার ‘এমা ডাটসি’। যা লাল চাল ও বড় সবুজ মরিচ দিয়ে তৈরি করা হয়। মজার ব্যাপার হলো যখন কেউ খাবারের জন্য অনুরোধ করে তখন বলে মেশু, মেশু।

ভুটানের মানুষ গাছ লাগাতে খুব পছন্দ করে। ২০১৫ সালে মাত্র ১ ঘণ্টায় ৫০ হাজার গাছের চারা লাগিয়ে ভুটান গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ড করে।

পর্যটকদের কাছে ভুটান অন্যতম প্রিয় দেশ। ভুটানের দর্শনীয় স্থানের মধ্যে অন্যতম জায়গা হলো ‘পারো তাকসং বা টাইগার মনাস্ট্রি’। ভুটানের জনপ্রিয় পবিত্র এই মন্দিরটি পারো ভ্যালির এক পাহাড় চূড়ায় অবস্থিত, যা পর্যটকদের মূল আকর্ষণ। আরেকটি জনপ্রিয় জায়গা ‘দোচু-লা পাস’। কারণ এখান থেকেই আপনি পাবেন হিমালয়ের ৩৬০ ডিগ্রি প্যানারোমিক ভিউ। যারা ভুটানে ঘুরতে যেতে চান তারা অবশ্যই এই দুটি জায়গা ঘুরবেন।

এছাড়াও রয়েছে রিনপাং জং, পুনাখা জং, ন্যাশনাল মিউজিয়াম অভ ভুটান, গাংতে মনাস্ট্রি, ফোবজিকা ভ্যালিসহ আরো বেশ কিছু দর্শনীয় স্থান। পাহাড়ে ঘেরা ছোট্ট এ দেশটি সত্যি মনোমুগ্ধকর।

আজকের প্রশ্ন

সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন ‘খালেদা জিয়ার শারীরিক অসুস্থতা নিয়ে বিএনপির নেতারা মিথ্যাচার ও বিভ্রান্তি করছে। আপনিও কি তাই মনে করেন?