বৃহস্পতিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ,২০২১

Bangla Version
  
SHARE

বুধবার, ১০ ফেব্রুয়ারী, ২০২১, ০৯:৩৪:২৭

পরিবেশবান্ধব ডিজিটাল রাইটিং প্যাড বাজারে আনল ওয়ালটন

পরিবেশবান্ধব ডিজিটাল রাইটিং প্যাড বাজারে আনল ওয়ালটন

ঢাকা : একের পর এক উচ্চমানের প্রযুক্তিপণ্য উৎপাদন এবং বাজারে আনছে দেশের শীর্ষস্থানীয় প্রযুক্তিপণ্য নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ওয়ালটন। এরই ধারাবাহিকতায় শিশুদের জন্য পরিবেশবান্ধব ও রেডিয়েশন মুক্ত ডিজিটাল রাইটিং প্যাড বাজারে নিয়ে এসেছে সুপারব্র্যান্ড ওয়ালটন। এর নাম দেয়া হয়েছে ‘মাইপেজ ডিজিটাল রাইটিং প্যাড’। যা বাচ্চাদের পড়াশুনার হাতেখড়িতে যোগ করবে অত্যাধুনিক প্রযুক্তির ছোঁয়া। তাদের শিক্ষার শুরুটা হবে প্রযুক্তিনির্ভর।

ওয়ালটনের নতুন এই পণ্যটিতে রয়েছে স্ক্রাচ রেজিস্টেন্ট ১০ ইঞ্চির ‘এন্টি ড্যাজলিং’ এলসিডি ফ্লিম স্ক্রিন। ২৫৪ মিলিমিটার উচ্চতা এবং ১৬৪ মিলিমিটার প্রস্থের সহজে বহনযোগ্য ওই ডিজিটাল রাইটিং প্যাডের ওজন মাত্র ১৫৮ গ্রাম। অত্যাধুনিক ‘মাইপেজ ডিজিটাল রাইটিং প্যাড’-এ ব্যবহৃত হয়েছে প্রেসার সেন্সর টেকনোলজি। সুরক্ষার জন্য রয়েছে এবিএস প্রোটেকশন ফ্রেম। এছাড়াও আছে একটি স্টাইলাস পেন। যা দিয়ে শিশুরা সহজেই আঁকতে বা লেখা শিখতে পারবে। সেই সাথে আরো আছে ওয়ান ক্লিক ফুল ইরেজ বাটন ও লক স্ক্রিন সুবিধা। ব্যাটারিতে চলা এই ডিভাইসটিতে চার্জ শেষ হয়ে গেলে থাকছে যতবার খুশি ব্যাটারি পরিবর্তনের সুবিধা। এছাড়াও পরিবেশবান্ধব এই ডিজিটাল রাইটিং প্যাড দিচ্ছে স্মুথ রাইটিং এক্সপেরিয়েন্স। শিশুদের জন্য নিরাপদ এই ডিভাইসটির অন্যতম বড় সুবিধা হচ্ছে এটি চোখের কোনো ক্ষতি করে না। প্যাডের অভ্যন্তরে স্টাইলাস পেন রাখার জায়গা থাকায় সহজেই কলমটি বহন করা যায়। ফলে এটি হারানোর শঙ্কা নেই।

ওয়ালটন সূত্রে জানা যায়, সর্বাধুনিক ফিচারসমৃদ্ধ মাইপেজ ডিজিটাল রাইটিং প্যাডের দাম রাখা হয়েছে মাত্র ৯৯৫ টাকা। বাচ্চাদের যাতে ছোটবেলা থেকেই প্রযুক্তি ব্যবহারের উপযোগী করে গড়ে তোলা যায়, সে উদ্দেশ্যে সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যেই এই মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে। বর্তমানে দেশের সব ওয়ালটন প্লাজা এবং ডিলার পয়েন্ট থেকে প্যাডটি কিনলে থাকছে ১০০ শতাংশ পর্যন্ত নিশ্চিত ক্যাশব্যাক পাওয়ার সুযোগ। এছাড়া অনলাইনে ই-প্লাজা থেকে অর্ডার করলেও মিলছে ১০ শতাংশ নগদ মূল্যছাড় সুবিধা এবং বাসায় বসে হোম ডেলিভারি নেয়ার সুযোগ।

এ প্রসঙ্গে ওয়ালটন ডিজি-টেক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের ডিএমডি এবং কম্পিউটার বিভাগের সিইও প্রকৌশলী লিয়াকত আলী বলেন, বর্তমান সময়ে প্রযুক্তিনির্ভর আধুনিক শিক্ষার কোনো বিকল্প নেই। আর তাই প্রযুক্তিনির্ভর শিক্ষাপণ্য সকলের হাতের নাগালে নিয়ে আসার ব্যাপারে কাজ করে যাচ্ছে ওয়ালটন। এ প্রচেষ্টায় নতুন সংযোজন মাইপেজ ডিজিটাল রাইটিং প্যাড। যা ছোট্ট সোনামনিদের লেখাপড়ার শুরুটা আনন্দময় এবং সহজ করতে সহায়ক ভূমিকা পালনে কার্যকর অবদান রাখবে। এই ডিজিটাল রাইটিং প্যাড একদিকে যেমন বাচ্চাদের লেখাপড়া করবে প্রযুক্তিনির্ভর, অপরদিকে কাগজের ব্যবহার রোধের মাধ্যমে পরিবেশ সুরক্ষায় রাখবে গুরুত্বপূর্ণ অবদান।

উল্লেখ্য, স্থানীয় ক্রেতাদের হাতে সাশ্রয়ী মূল্যে ডিজিটাল প্রযুক্তিপণ্য তুলে দিতে সম্প্রতি ওয়ালটন শুরু করেছে ১০০% পর্যন্ত ক্যাশব্যাক অফার। ওয়ালটন কর্পোরেট অফিসে ওই ক্যাম্পেইনের উদ্বোধন করেন ওয়ালটন ডিজি- টেক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের চেয়ারম্যান এস এম রেজাউল আলম। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন আন্তর্জাতিক শিশু শান্তি পুরস্কার বিজয়ী সাদাত রহমান। অনলাইনে সংযুক্ত ছিলেন তরুণ উদ্যোক্তা ও রবি টেন মিনিটস স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা আয়মান সাদিক। ওই অফারের আওতায় ওয়ালটনের সব মডেলের ল্যাপটপ, ডেস্কটপ ও কম্পিউটার এক্সেসরিজে ১০০% পর্যন্ত ক্যাশব্যাক পাওয়ার সুযোগ রয়েছে। যা ইতোমধ্যে প্রযুক্তিপ্রেমীদের মধ্যে বেশ সাড়া ফেলেছে।

আজকের প্রশ্ন

বিএনপির নেতারা আইন না বুঝেই মন্তব্য করে আইনমন্ত্রীর এমন বক্তব্যে আপনি কি একমত?