মঙ্গলবার, ২২ জুন ,২০২১

Bangla Version
  
SHARE

বুধবার, ০৯ জুন, ২০২১, ১২:০২:৫৪

যশের কারণে ভেঙেছে মিমি-নুসরাতের বন্ধুত্বও

যশের কারণে ভেঙেছে মিমি-নুসরাতের বন্ধুত্বও

বিনোদন ডেস্ক : টলিউডে অভিনেত্রী নুসরাত জাহান ও মিমি চক্রবর্তীর মধ্যে ঘনিষ্ঠ বন্ধুত্ব ছিল। এ কথা সকলেই জানা। তারা একে অপরকে বোনু বলে ডাকতেন। একটা সময় দুজনে বেঁধে বেঁধে থাকতেন।

একসঙ্গে রাজনীতি শুরু করে তৃণমূল কংগ্রেস থেকে সংসদ সদস্যও নির্বাচিত হয়েছেন। রাজনৈতিক মিটিং থেকে শুরু করে বন্ধুদের পার্টি, টলিগঞ্জে প্রিমিয়ার থেকে বাড়ির অনুষ্ঠান- সবখানেই একসঙ্গে হাজির থাকতেন মিমি-নুসরাত।

২০১৯ সালে দিল্লির ব্যবসায়ী নিখিল জৈনের সঙ্গে নুসরাতের বিয়ে হয় তুরস্কে। প্রিয় বন্ধুর বিশেষ দিনে উপস্থিত থাকতে সব কাজ ফেলে সেখানেও উড়ে গিয়েছিলেন মিমি। বেস্ট ফ্রেন্ড তো বটেই নুসরাতের পরিবারের সদস্যও হয়ে উঠেছিলেন মিমি। কিন্তু আগের সেই বন্ধন আর নেই। ঢিলে হয়ে গেছে একেবারেই। গুঞ্জন রয়েছে, অভিনেতা যশ দাশগুপ্তের কারণেই বন্ধুত্ব ভেঙেছে মিমি আর নুসরাতের।

কিন্তু কেন? যশ-নুসরাতের সম্পর্কে মিমির লাভ-ক্ষতি কী? ঘটনা হচ্ছে, অভিনেতা যশকে নাকি মিমিও ভালোবাসতেন। তারা দুজনে জুটি বেঁধে চারটি ছবিতে অভিনয় করেছেন। দীর্ঘদিন একসঙ্গে কাজ করতে করতেই যশের প্রতি ভালো লাগা, তারপর ভালোবাসা তৈরি হয় মিমির। এ কথা নাকি তার একসময়ের বেস্ট ফ্রেন্ড নুসরাতও জানতেন। তা সত্ত্বেও স্বামী নিখিলকে ছেড়ে পরবর্তীতে বন্ধুর ভালোবাসার দিকে হাত বাড়ান নুসরাত।

পছন্দের মানুষ যশের সঙ্গে প্রিয় বন্ধুর এই ভালোবাসা মানতে পারেননি মিমি। তাইতো নিরবে দুজনের থেকেই দূরত্ব বাড়িয়ে দেন। না বলেছেন যশকে কিছু, না বলেছেন নুসরাতকে। এই কারণে যশ-নুসরাতের সম্পর্কের শুরু থেকেই মুখে কুলুপ এটে রয়েছেন মিমি। তাদের কোনো ব্যাপারেই কোনো মন্তব্য দিচ্ছেন না। দীর্ঘদিন একসঙ্গে মিমি-নুসরাতকে কোনো পার্টিতেও দেখা যাচ্ছে না। দুজন এক অপরকে একেবারেই এড়িয়ে চলছেন।

যশকে কেন্দ্র করে দুই সাংসদ অভিনেত্রীর সম্পর্ক যে একেবারেই ভালো যাচ্ছে না, তা নুসরাতের সম্প্রতি দেয়া এক ইনস্টাগ্রাম পোস্টে পুরোপুরি পরিষ্কার। সেখানে মিমিকে উদ্দেশ্য করে নুসরাত লিখেছেন, ‘একটু দেরিতে হলেও যখন আপনি বুঝবেন, প্রিয় বন্ধু আপনার সঙ্গে নেই, আপনার উত্থানে কোনো সাহায্য না করে বরং শক্তি কমিয়ে দিতে পিছ পা হচ্ছেন না, সেই বন্ধুর কথা দুবার না ভেবে সম্পর্ক শেষ করে দেয়াই উচিৎ। কারণ তাদের জীবনে রাখলে আপনিই মানসিক ভাবে দুর্বল হবেন।’

যশের সঙ্গে ২০১৭ সালে জুটি বেঁধে ‘ওয়ান’ নামের একটি ছবিতে অভিনয় করেন নুসরাত। এরপর ২০১৯ সালে নিখিলের সঙ্গে নুসরাতের বিয়ের পর আবারও নায়িকা যশের সঙ্গে জুটি বাঁধেন ‘সেভেন’ নামে একটি সিনেমায়। শোনা যায়, এই ছবির শুটিং সেট থেকেই মন দেয়া-নেয়া করেন যশ-নুসরাত। সেটি প্রকাশ পায় গত বছরের শেষ দিকে, যখন তারা একসঙ্গে গোয়ায় ঘুরতে যান এবং একই হোটেলে থাকেন। ওই হোটেলের মালিক নিখিলের বন্ধু হওয়ায় ঘটনাটি প্রকাশ হয়ে যায়।

তখন থেকেই দূরত্ব বাড়তে থাকে নিখিল আর নুসরাতের। একসময় তারা একে অন্যের থেকে আলাদা থাকতে শুরু করেন। নিখিল চলে যান তার দিল্লির বাড়িতে এবং নুসরাত থাকতে শুরু করেন তার বালিগঞ্জের ফ্ল্যাটে।

গুঞ্জন রয়েছে, এই ফ্ল্যাটে নিয়মিত যাওয়া-আসা করেন নায়িকার প্রেমিক যশ। আগামী ১০ সেপ্টেম্বর নুসরাত এই যশের সন্তানেরই মা হতে চলেছেন বলে রব উঠেছে। এও শোনা যাচ্ছে, তারা গোপনে বিয়েও করেছেন। যদিও এ নিয়ে মুখ খুলছেন না যশ-নুসরাত।

আজকের প্রশ্ন

পুরো ঢাকায় ‘অঘোষিত কারফিউ’ চলছে। সরকার জনগণকে জিম্মি করে জনগণকে বাদ দিয়ে বিদেশি অতিথিদের নিয়ে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপনে ব্যস্ত। ফখরুলের এক মন্তব্যের সঙ্গে আপনি কি একমত?