বুধবার, ১২ মে ,২০২১

Bangla Version
  
SHARE

মঙ্গলবার, ১৩ এপ্রিল, ২০২১, ১০:১৫:১৪

লকডাউনে ব্যাংক চলবে ১টা পর্যন্ত: রবি, মঙ্গল ও বৃহস্পতিবার উপজেলায় একটি শাখা খোলা থাকবে

লকডাউনে ব্যাংক চলবে ১টা পর্যন্ত: রবি, মঙ্গল ও বৃহস্পতিবার উপজেলায় একটি শাখা খোলা থাকবে

ঢাকা : আগামী বৃহস্পতিবার থেকে ২১ এপ্রিল পর্যন্ত সরকার ঘোষিত ‘সর্বাত্মক লকডাউনে’ ব্যাংকে লেনদেন সকাল ১০টা থেকে দুপুর একটা পর্যন্ত চলবে। ব্যাংক খোলা রাখা যাবে দুপুর আড়াইটা পর্যন্ত। বাংলাদেশ ব্যাংক আজ নতুন করে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে। নতুন সিদ্ধান্ত অনুযায়ী প্রতিটি ব্যাংকের উপজেলা শহরের একটি শাখা খোলা থাকবে বৃহস্পতিবার, রোববার ও মঙ্গলবার। সিটি করপোরেশনের এলাকার দুই কিলোমিটারের মধ্যে একটি শাখা প্রতি কর্মদিবস খোলা রাখতে হবে।

ব্যাংক বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়ার ২৪ ঘণ্টার মধ্যে আজ নতুন এই সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। মূলত সরকার থেকে বারবার সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করায় এমন পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে বলে জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় ব্যাংকের কর্মকর্তারা।

মন্ত্রী পরিষদ বিভাগ আজ মঙ্গলবার বিশেষ প্রয়োজনে ব্যাংক সেবা প্রদানের অনুরোধ জানিয়ে কেন্দ্রীয় ব্যাংককে চিঠি দেয়। ওই চিঠি পাওয়ার পর কেন্দ্রীয় ব্যাংক এই সিদ্ধান্ত নেয়। এর আগে গতকাল কেন্দ্রীয় ব্যাংক জানিয়েছিল, ১৪ থেকে ২১ এপ্রিল ব্যাংক শাখা বন্ধ থাকবে। তবে বন্দর এলাকার ব্যাংক শাখা খোলা রাখা যাবে।

ব্যাংক খোলা সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, প্রতিটি ব্যাংকের উপজেলা শহরের একটি শাখা খোলা থাকবে রোববার, মঙ্গলবার ও বৃহস্পতিবার। আর সিটি করপোরেশন এলাকার দুই কিলোমিটারের মধ্যে একটি শাখা প্রতি কর্মদিবস খোলা রাখতে হবে। এ ছাড়া প্রধান শাখাসহ বৈদেশিক মুদ্রায় অনুমোদিত ডিলার শাখা খোলা রাখতে হবে।

ব্যাংক বন্ধে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নেওয়া সিদ্ধান্তের পর আজ মঙ্গলবার সকাল থেকে রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের ব্যাংকে ছিল উপচেপড়া ভিড়। এমনকি রাজধানীর অনেক শাখায় গ্রাহক চাহিদামতো টাকা না পাওয়ার অভিযোগও করেছেন। এরপর ব্যাংক খোলার সিদ্ধান্তের কথা জানায় কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

এদিকে ব্যাংক বন্ধ থাকার কারণে ব্যাংকগুলোর এটিএম বুথ থেকে দিনে এক লাখ টাকা পর্যন্ত নগদ উত্তোলনের সীমা বাড়িয়ে দেয় কেন্দ্রীয় ব্যাংক। বর্তমানে বেশির ভাগ ব্যাংকের কার্ড দিয়ে দিনে ৫০ হাজার টাকা ও কিছু ব্যাংক থেকে বেশি অর্থ উত্তোলন করা যায়। নিজ ব্যাংকের বুথ ও অন্য ব্যাংকের বুথ থেকে একই সীমা প্রযোজ্য হবে।

আজকের প্রশ্ন

পুরো ঢাকায় ‘অঘোষিত কারফিউ’ চলছে। সরকার জনগণকে জিম্মি করে জনগণকে বাদ দিয়ে বিদেশি অতিথিদের নিয়ে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপনে ব্যস্ত। ফখরুলের এক মন্তব্যের সঙ্গে আপনি কি একমত?