মঙ্গলবার, ২২ জুন ,২০২১

Bangla Version
  
SHARE

মঙ্গলবার, ০৮ জুন, ২০২১, ০১:১২:৩১

করোনা থেকে দ্রুত সুস্থ হতে চান? মেনে চলুন এই ৪ উপায়

করোনা থেকে দ্রুত সুস্থ হতে চান? মেনে চলুন এই ৪ উপায়

স্বাস্থ্য ডেস্ক : মানব শরীরে যখন কোনো ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াই করে তখন দেহে বেশি পরিমাণ এনার্জি ও তরল উপাদান প্রয়োজন হয়। করোনার মত মারাত্মক ভাইরাস থেকে সেরে ওঠার পর শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা হ্রাস পেতে পারে। এই সময় বেশি প্রয়োজন পুষ্টির। যদি কেউ সম্প্রতি করোনা থেকে সেরে উঠে থাকেন তাকে খাওয়ার দিকে বেশি সচেতন ও স্বাস্থ্যকর জীবন যাপন করতে হবে।

এমন বেশ কিছু খাদ্য আছে যা খেলে আপনি দ্রুত সেরে উঠতে পারেন। আসুন জেনে নিই যেসব খাবার খেলে দ্রূত করোনা থেকে সুস্থ হতে পারে।

প্রোটিন

করোনা থেকে সুস্থ হয়ে ওঠার পর প্রোটিন জাতীয় খাবার খেতে পারেন। কারণ প্রোটিন আপনাকে দ্রুত সুস্থ করতে পারে। ক্ষতিকারক প্যাথজেনকে প্রতিরোধ করে প্রোটিন থেকে প্রাপ্ত অ্যামিনো অ্যাসিড। এই সময় প্রতিদিন ৭৫ থেকে ১০০ গ্রাম প্রোটিন প্রয়োজন। এছাড়া ডাল, দুধ, দুগ্ধজাত পদার্থ, সয়া, বাদাম ও বীজ জাতীয় খাবার খাওয়া প্রয়োজন। প্রাণিজ প্রোটিন যেমন মাংস ও ডিম খেতে পারেন।

ক্যালরি

করোনা থেকে সুস্থ হওয়ার পর এনার্জি লেভেল বৃদ্ধি জন্য ক্যালরি জাতীয় খাবার খাওয়া প্রয়োজন। এক্ষেত্রে শস্য জাতীয় খাবার যেমন- গম, মিলেট, ওটস, ব্রাউন রাইস, আলু ইত্যাদি প্রত্যেকদিন খাবারে রাখা প্রয়োজন। মানবদেহে এনার্জি বৃদ্ধি করতে এবং রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা উন্নত করতে এই গুলো সাহায্য করে।

তরল পানীয়

পানি মানব জীবনের জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ উপাদান। যা শরীরের তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে এবং শরীর থেকে বর্জ্য পদার্থ নিষ্কাশন করে।

প্রতিদিন তাই কমপক্ষে ৮ থেকে ১০ গ্লাস পানি পান করা প্রয়োজন। এছাড়াও সুপ, ভেষজ চা পান করা যেতে পারে। মিষ্টি জাতীয় ফলের রস খাওয়া থেকে বিরত থাকুন।

ফল ও সবজি

ফল ও সবজিতে থাকে প্রচুর পরিমাণ ফাইবার, ভিটামিন ও অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। এই পদার্থগুলো পুনরায় রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা গড়ে তুলতে সাহায্য করে। প্রতিদিন ২ কাপ তাজা ফল ও আড়াই কাপ তাজা সবজি খাওয়া প্রয়োজন। কমলালেবু, কিউই, স্ট্রবেরি, পেয়ারা, পেঁপে এই ধরনের ফল খাওয়া যেতে পারে এবং সবুজ সবজি, গাজর, লাউ জাতীয় সবজি খাওয়া প্রয়োজন।

আজকের প্রশ্ন

পুরো ঢাকায় ‘অঘোষিত কারফিউ’ চলছে। সরকার জনগণকে জিম্মি করে জনগণকে বাদ দিয়ে বিদেশি অতিথিদের নিয়ে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপনে ব্যস্ত। ফখরুলের এক মন্তব্যের সঙ্গে আপনি কি একমত?