বুধবার, ২৫ নভেম্বর ,২০২০

Bangla Version
  
SHARE

মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর, ২০২০, ১১:৩২:১৬

চীনকে ঠেকাতে চার শক্তিধর দেশের নৌমহড়া

চীনকে ঠেকাতে চার শক্তিধর দেশের নৌমহড়া

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: যুক্তরাষ্ট্র, জাপান ও ভারতের সঙ্গে অস্ট্রেলিয়া আগামী মাসেই মালাবার নৌ মহড়ায় অংশ নেবে। চীনের সঙ্গে দেশগুলির চলমান উত্তেজনার মধ্যেই এ নৌমহড়া অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। এ সামরিক নৌমহড়াটি ভারতীয় উপকূলের আরব সাগর ও বঙ্গপোসাগরে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। সোমবার ভারতের পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে অস্ট্রেলিয়াকে আমন্ত্রণও জানানো হয়েছে।

আলজাজিরা এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, ২০০৭ সালের পর নভেম্বরের শেষ দিকে প্রথমবারের মতো ভারত, যুক্তরাষ্ট্র ও জাপানের সঙ্গে নৌ মহড়ায় অংশ নেবে অস্ট্রেলিয়া। অর্থাৎ পুরো ‘কোয়াড’ বা ‘কোয়াড্রিল্যাটারাল সিকিউরিটি ডায়লগ’—এর অংশগ্রহণ হবে এই মহড়া।

এমন সময় এই মহড়াটি অনুষ্ঠিত হচ্ছে যখন চীন ও অস্ট্রেলিয়া কূটনৈতিক বিরোধ চলছে। এছাড়া যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে বাণিজ্য নিয়ে বিরোধ রয়েছে চীনের। সেই সঙ্গে ভারতের সঙ্গে সীমান্ত নিয়েও চীনের মারাত্মক দ্বন্দ্ব চলছে।

ভারতীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, আলোচিত নৌমহড়াটি আরব সাগর ও বঙ্গোপসাগরে অনুষ্ঠিত হবে, যা ভারত ও চীনের কৌশলগত প্রতিযোগিতার হটস্পট।  

আলজাজিরার প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, গত কয়েক দশক ধরেই চীন মিয়ানমার, শ্রীলংকা, পাকিস্তান এবং বাংলাদেশে গুরুতরভাবে প্রভাব বিস্তারের চেষ্টা করছে, যা নিয়ে ব্যাপক উদ্বেগ রয়েছে নয়া দিল্লির।

প্রসঙ্গত, ভারত ও প্রশান্ত মহাসাগরে নৌ চলাচল ‘অবাধ ও স্বাধীন‘ রাখার উপায় খোঁজার যুক্তি দেখিয়ে ২০০৭ সালে যুক্তরাষ্ট্র, জাপান, অস্ট্রেলিয়া ও ভারতের মধ্যে 'কোয়াড' নামে সংলাপের সূচনা হয়েছিল।  দশ বছর পর ‘কোয়াড সংলাপ’ ২০১৭ সাল থেকে নতুন করে জীবন ফিরে পায়।  

কোয়াডের চারটি সদস্য দেশের মধ্যে ২০১৭ সাল থেকে বিভিন্ন পর্যায়ে নিয়মিত বৈঠক হচ্ছে, তবে চীনকে চাপে ফেলতে এই বৈঠক, তা কখোনও স্পষ্ট করেনি এই চার দেশ।  

 

আজকের প্রশ্ন

বিএনপির নেতারা আইন না বুঝেই মন্তব্য করে আইনমন্ত্রীর এমন বক্তব্যে আপনি কি একমত?