মঙ্গলবার, ০২ মার্চ ,২০২১

Bangla Version
  
SHARE

রবিবার, ১৭ জানুয়ারী, ২০২১, ০৯:২১:৩১

উগান্ডায় বিতর্কিত নির্বাচনে মুসেভিনি বিজয়ী

উগান্ডায় বিতর্কিত নির্বাচনে মুসেভিনি বিজয়ী

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ৩৫ বছর ধরে উগান্ডার ক্ষমতায় থাকা প্রেসিডেন্ট ইয়েওরি মুসেভিনিকে ফের বিজয়ী ঘোষণা করেছে দেশটির নির্বাচন কমিশন। তবে নির্বাচনে ব্যাপক কারচুপি এবং ভোট জালিয়াতির অভিযোগ তুলে এ ফল প্রত্যাখ্যান করেন তরুণ বিরোধী নেতা ববি ওয়াইন।

শনিবার উগান্ডার নির্বাচন কমিশন এক টেলিকনফারেন্সে ঘোষণা করেছে, এবারের নির্বাচনে ৫৮ দশমিক ৬৪ শতাংশ বা ৫৮ লাখ ৫০ হাজার ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন টানা ৩৫ বছর ধরে ক্ষমতায় থাকা মুসেভিনি।

তার প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী ববি ওয়াইন পেয়েছেন ৩৪ লাখ ৮০ হাজার বা ৩৪ দশমিক ৮৩ শতাংশ ভোট। এবারের নির্বাচনে ভোট দিয়েছেন দেশটির ৫২ শতাংশ ভোটার।

ফল ঘোষণার পরপরই ববি ওয়াইনের প্রতিনিধি বেঞ্জামিন কাতানা এটিকে ‘উগান্ডার জনগণের ইচ্ছাকে অবদমিত করার প্রচেষ্টা’ বলে উল্লেখ করেছেন। আলজাজিরাকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, ‘আমরা উগান্ডার জনগণকে দৃঢ়তার সঙ্গে দাঁড়াতে এবং এই অভ্যুত্থান বন্ধে কাজ করার আহ্বান জানাই।’

নির্বাচনের ফল ঘোষণার আগে থেকেই ৩৮ বছর বয়সী ববি ওয়াইনের বাসা ঘিরে রেখেছে সরকারি নিরাপত্তা বাহিনী। তার দলের দাবি, তরুণ এ নেতাকে কার্যত গৃহবন্দি করেছে মুসেভিনি সরকার।

নির্বাচনী প্রচারের সময়ও বেশ কয়েকবার গ্রেফতার হয়েছিলেন সঙ্গীতাঙ্গন থেকে রাজনীতির মাঠে নামা রবার্ট কিয়াগুলানি ওরফে ববি ওয়াইন।

শনিবার ফল ঘোষণার আগেই রাজধানী কাম্পালায় বিপুলসংখ্যক পুলিশ ও অন্যান্য বাহিনীর নিরাপত্তা সদস্য মোতায়েন করেছে উগান্ডান সরকার। নির্বাচনের আগের দিন থেকে বন্ধ রয়েছে ইন্টারনেট সেবাও।

ববি ওয়াইন দাবি করেন, তার কাছে নির্বাচনে দুর্নীতি হওয়ার ভিডিও প্রমাণ রয়েছে। ইন্টারনেট চালু হওয়া মাত্রই সেগুলো প্রকাশ করা হবে। এবারের নির্বাচনকে উগান্ডার ইতিহাসে সবচেয়ে দুর্নীতিপূর্ণ নির্বাচন হিসেবে উল্লেখ করেন এ নেতা।

ইন্টারনেট বন্ধ রেখে সারাদেশ থেকে কীভাবে ভোটের ফলাফল জোগাড় করা হলো তার সদুত্তর দিতে পারেনি উগান্ডার নির্বাচন কমিশনও। কমিশনের চেয়ারম্যান সাইমন মুগেনি বিয়াবাকামার কাছে এ বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, ‘আমরা নিজেদের মতো ব্যবস্থা করে নিয়েছি।’ তবে সেই ব্যবস্থা কী ছিল, তা জানাননি এ বিচারপতি।

বিতর্কিত নির্বাচনে বিজয়ী ঘোষণার পর শনিবার জনতার উদ্দেশে ভাষণ দেয়ার কথা রয়েছে ৭৬ বছর বয়সী মুসেভিনির। এবারের নির্বাচনের ফল পরিবর্তন না হলে টানা ৬ষ্ঠ মেয়াদে প্রেসিডেন্টের চেয়ারে বসতে চলেছেন তিনি।

আজকের প্রশ্ন

বিএনপির নেতারা আইন না বুঝেই মন্তব্য করে আইনমন্ত্রীর এমন বক্তব্যে আপনি কি একমত?