শনিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ,২০২০

Bangla Version
  
SHARE

বৃহস্পতিবার, ১০ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ০৩:৪৬:৪৭

ক্ষমা করবেন বেগম খালেদা জিয়া

ক্ষমা করবেন বেগম খালেদা জিয়া

ঢাকা : ১০ সেপ্টেম্বর দেশমাতা বেগম খালেদা জিয়ার কারামুক্তি দিবস। গনতন্ত্র ও ভোটাধিকার হরনের বিরুদ্ধে জনগনকে ঐক্যবদ্ধ করার অপরাধে কারামুক্তির দিবসেও খালেদা জিয়া গৃহবন্দী। গনতন্ত্রের মোড়কে ফ্যাসীবাদ কায়েমে শেখ হাসিনার একমাত্র বাধা শহিদ জিয়ার পরিবার।

তাই শেখ হাসিনা বাংলার মীরজাফর খ্যাত ফখরউদ্দিন ও মঈনউদ্দিনের জরুরী সরকারের যোগসাজশে ২০০৯ বেগম জিয়াকে ক্ষমতায় যেতে দেয়নি। শেখ হাসিনা ক্ষমতায় এসেই শহীদ জিয়ার স্মৃতি বিজরিত মঈনুল রোডের বাড়ী থেকে উচ্ছেদ করেছে।

এতেই খ্যান্ত হননি বাংলার ঘোষটি বেগম খ্যাত শেখ হাসিনা, তিনি মিথ্যা ও ভিত্তিহীন মামলায় জড়িয়ে নিম্ন আদালতকে ব্যবহার করে ৫ বছরের সাজা দিয়ে কারান্তরীন করে। এত সন্তুষ্টি হয়নি হাসিনা, উচ্চ আদালতকে দিয়ে ৫ বছরের সাজাকে ১০ বছর করেছে। নির্জন কারা অভ্যান্তরে বেগম জিয়ার সুচিকিৎসা না হওয়ার হাত বেকে গেছে, অপারেশন করা হাটুর সমস্যা, চোখের সমস্যা ও নানা জটিলতায় পরিবারের আবেদনের প্রেক্ষিতে প্যারোল দিলেও কার্যত তিনি গৃহবন্দি রয়েছেন। তার ব্যাক্তিগত চিকিৎসকরা জানিয়েছেন বেগম খালেদা জিয়াকে উন্নত চিকিৎসায় প্রয়োজনে বিদেশ নেয়া জরুরী। কিন্ত সরকার কোন কার্যকর পদক্ষেপ নিচ্ছে না।

আওয়ামী লীগ চায় না বেগম খালেদা জিয়া সুস্থ্য হউক। তিনি রাজনীতিতে ফিরে আসুক। বেগম খালেদা জিয়ার সুচিকিৎসায় বিএনপিসহ সকল গনতান্ত্রিক শক্তিকে দেশমাতা ও দেশকে মুক্ত করার সংগ্রাম জোরদার করতে হবে। মনে রাখবেন, বেগম খালেদা জিয়া শুধু বিএনপির নেত্রী নন, তিনি দেশপ্রেমিক জাতীয়তাবাদী ও ধর্মীয় মুল্যোবোধে বিশ্বাসী শক্তির ঐক্যের প্রতিক।

গনতন্ত্র ও ভোটাধিকার প্রতিষ্ঠার আন্দোলনে সবচেয়ে নির্যাতিত পরিবার হচ্ছে জিয়া পরিবার আর চরম নির্যাতিত আপোষহীন নেত্রী হচ্ছেন বেগম খালেদা জিয়া। বিএনপি বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবীতে কোন কার্যকর আন্দোলন করতে পারেনি, এটা বিএনপি চরম ব্যর্থতা।

২০ দলীয় জোটকে কার্যকর করে ২০১৫ সালের ন্যায় পরিকল্পিত ভাবে আন্দোলন সংগ্রাম করতে পারলে দেশমাতা বেগম খালেদা জিয়াও মুক্ত হতেন, আর জনগন আওয়ামী দুঃশাসন থেকে মুক্তি পেতেন। জনমুক্তির মাহেন্দ্রক্ষনটি দেশবাসী আমাদের কাছেই আশা করে। আমরা লেবার পার্টি নেত্রীর মুক্তির জন্য যথাযথ ভুমিকা রাখতে পারিনি।

তবে চেষ্টায় কৃপনতা করিনি। তাই ব্যর্থতার জন্য বেগম জিয়ার কাছে ক্ষমা চাই। ক্ষমা করবেন মাননীয় নেত্রী। যতটুকু অর্জন ও পরিচিতি আপনার হাত ধরেই। আপনার সুস্থ্যতা ও দীর্ঘায়ু কামনা করছি।

ডাঃ মোস্তাফিজুর রহমান ইরান
চেয়ারম্যান-বাংলাদেশ লেবার পার্টি

আজকের প্রশ্ন

বিএনপির নেতারা আইন না বুঝেই মন্তব্য করে আইনমন্ত্রীর এমন বক্তব্যে আপনি কি একমত?