বৃহস্পতিবার, ২৯ অক্টোবর ,২০২০

Bangla Version
  
SHARE

রবিবার, ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ০৭:০৪:৪৪

৫ অক্টোবর প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় ঘেরাও করবে বাম গণতান্ত্রিক জোট

৫ অক্টোবর প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় ঘেরাও করবে বাম গণতান্ত্রিক জোট

ঢাকা : বন্ধ সকল রাষ্ট্রীয় পাটকল চালু ও আধুনিকায়নসহ কয়েকদফা না মানলে আগামী ৫ অক্টোবর প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় ঘেরাও করবে বাম গণতান্ত্রিক জোট। রবিবার (২৭ সেপ্টেম্বর) জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে আয়োজিত এক বিক্ষোভ সমাবেশ থেকে এই কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়।

পরে আগে একটি বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে পাটমন্ত্রণালয় অভিমুখে যাত্রা করলে নূর হোসেন স্কোয়ারের আব্দুল গণি রোডের মুখে পুলিশ বাঁধা দিলে কর্মী ও পুলিশের মধ্যে ধস্তাধস্তি হয়। তবে কেউ আহত হয়নি। পরে সেখানেই কর্মসূচি শেষ করে জোটটি।

এর আগে বিক্ষোভ সমাবেশ থেকে বক্তারা বলেন, সরকার একবার বলছে পাটকলগুলোকে সরকারি-বেসরকারি অংশীদারিত্বের (পিপিপি) মাধ্যমে চালু করা হবে, আবার বলছে লীজ দেয়া হবে। বাস্তবে জনগণের পাটকল ব্যক্তিমালিকদের কাছে বিক্রি করার পাঁয়তারা করছে সরকার। রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকল বন্ধের পেছনে সরকারের বড় অজুহাত লোকসান। কিন্তু কেন লোকসান, কাদের কারণে লোকসান, লোকসান বন্ধ করতে কী কী উদ্যোগ নেওয়া হয়েছিল? সে সব প্রশ্নের কোন উত্তর নেই। সরকার মাথা ব্যথায় ওষধ না দিয়ে মাথা কেটে ফেলার ব্যবস্থা করছে।

বক্তারা আরও বলেন, আমরা বার বার বলেছি লোকসানের জন্য দায়ী সরকারের ভুলনীতি, দুর্নীতি এবং লুটপাট। সময়মত পাট কেনার টাকা না দেয়া, পরবর্তীতে বেশি দামে নিম্নমানের পাট কেনা, ৫০/৬০ বছরের পুরনো তাঁত দিয়ে উৎপাদন করা, বিজেএমসি’র মাথাভারি প্রশাসনের ব্যয় ইত্যাদি হলো লোকসানের প্রধান কারণ।

তারা হুশিয়ারি করে বলেন, বন্ধ সকল রাষ্ট্রীয় পাটকল সেপ্টেম্বরের মধ্যে চালু ও আধুনিকায়ন করতে হবে, শ্রমিকদের সকল বকেয়া পরিশোধ করতে হবে, লোকসানের জন্য দায়ী মন্ত্রণালয় ও বিজেএমসির কর্মকর্তাদের বিচারের আওতায় আনতে হবে, সরকারি-বেসরকারি সকল পাটকলে জাতীয় ন্যূনতম মজুরি ঘোষণা করতে হবে। না হলে এসব দাবিতে আগামী ৫ অক্টোবর প্রধানমন্ত্রী কার্যালয় ঘেরাও করা হবে।

বিক্ষোভ সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন বাম গণতান্ত্রিক জোটের কেন্দ্রীয় সমন্বয়ক ও বাসদ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য কমরেড বজলুর রশীদ ফিরোজ, সিপিবি’র সহকারী সাধারণ সম্পাদক কমরেড সাজ্জাদ জহির চন্দন, গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়কারী কমরেড জোনায়েদ সাকি, কমিউনিস্ট লীগের সম্পাদক কমরেড অধ্যাপক আব্দুস সাত্তার, গণতান্ত্রিক বিপ্লবী পার্টির সাধারণ সম্পাদক কমরেড মোশরেফা মিশু, বাসদ (মার্কসবাদী) কেন্দ্রীয় নেতা কমরেড মানস নন্দী, বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির পলিটব্যুরো সদস্য কমরেড আকবর খান, গণসংহতি আন্দোলনের কেন্দ্রীয় সম্পাদক মন্ডলীর সদস্য বাচ্চু ভুইয়া প্রমুখ।

এই বিভাগের আরও খবর

  বিএনপি নির্বাচনে অংশ নেয় লোক দেখাতে : কাদের

  আ’লীগের ফাঁদে আর পা দিবে না বিএনপি: মনি স্বপন দেওয়ান

  সরকারের ওপর জনগণের বিশ্বাস নেই: নজরুল

  মহানবীকে (সা:) অবমাননায় বিশ্ব মুসলিমকে ক্ষুদ্ধ করেছে ফ্রান্স : ন্যাপ

  তাদের আন্দোলনের ঢেউ টেমস নদীর পাড় থেকে গুলশান অফিস পর্যন্ত : কাদের

  ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনকে কবরে পাঠাতে বল‌লেন ডাঃ জাফরুল্লাহ চৌধুরী

  একটি নির্বাচিত সরকার আমরা দেখতে চাই: আমীর খসরু

  বিএনপি নেতা ফজলুল হক মিলন করোনায় আক্রান্ত

  বিএনপি নির্বাচনে অংশ নিলেই আ.লীগে অস্থিরতা শুরু: প্রিন্স

  ফ্রান্সে মহানবীর অবমাননা মুসলিমদের‌কে আহত করেছে: লেবার পার্টি

  সময় এলেই সংবিধান অনুযায়ী নির্বাচন হবে : কাদের

আজকের প্রশ্ন

বিএনপির নেতারা আইন না বুঝেই মন্তব্য করে আইনমন্ত্রীর এমন বক্তব্যে আপনি কি একমত?